১৯ আগস্ট ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫, শনিবার
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার

টেম্পু চালককে ‘রক্তাক্ত’ করলো ট্রাফিক পুলিশ (ভিডিওসহ)

একুশে প্রতিবেদক
প্রকাশিতঃ শনিবার, মে ১২, ২০১৮

চট্টগ্রাম : নগরের ডবলমুরিং থানার দেওয়ানহাট ফায়ার সার্ভিসের সামনে বেআইনিভাবে ইউটার্ন করার সুবিধার বিনিময়ে ঘুষ না দেওয়ায় এক টেম্পু চালককে মেরে রক্তাক্ত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনার ভিডিও একুশে পত্রিকার কাছে সংরক্ষিত আছে।

শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটার পর রক্তাক্ত চালককে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন চমেক পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক আব্দুল হামিদ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দেওয়ান হাট ফায়ার সার্ভিসের সামনে ডিভাইড়ারের বেশ কিছুটা অংশ ফাঁকা রাখা হয়েছে যাতে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি আগুন নেভাতে সেদিকে ইউটার্ন করতে পারে। তবে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ছাড়া ছোট ও মাঝারি প্রকৃতির গাড়ি প্রতিদিন এই ফাঁকা অংশকে ইউটার্ন হিসেবে ব্যাবহার করার সুযোগ দিয়ে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশরা তাদের কাছ থেকে উপরি নিয়ে থাকে।

কিন্তু দুপুরে একটি টেম্পু ঘুরানোর সময় ট্রাফিক কনস্টেবল সামনে পথ আটকিয়ে তার কাছ থেকে বেআইনি এই কাজের জন্য টাকা দাবি করে। টাকা না দিয়ে দ্রুত চলে যেতে চাইলে ‘টাকা না দিয়ে গাড়ি ঘুরিয়ে চলে যাবে এটা তো হতে পারে না’ একথা বলে টেম্পু চালককে কিল ঘুষি দিতে থাকে। পরে গাড়ির চালক ও হেলপার গাড়ি বন্ধ করে প্রতিবাদ জানালে বেশ কয়েকজন দায়িত্বরত পুলিশ কনেস্টেবল তাদের দুজনকেই এলোপাতাড়ি মেরে রক্তাক্ত করেন।

আর এতে কর্তব্যরত সার্জেন্ট আব্দুর রহমান সহযোগিতা করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পথচারিরা উত্তেজিত হয়ে উঠলে আক্রমণকারি পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। এসময় অন্য পুলিশ সদস্যদের উত্তেজিত পথচারিদের শান্ত করতে দেখা যায় এবং তারা আহত চালককে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

শনিবার রাত ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) আকরাম হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু মিটিংয়ে থাকায় এ ব্যাপারে তাঁর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে চালক ও স্থানীয়রা এই বেআইনি ইউটার্ন করার বিনিময়ে ঘুষ বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

একুশে/এএইচ/এডি/এটি