১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আমাদের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ রবিবার, নভেম্বর ১১, ২০১৮, ৪:২৬ অপরাহ্ণ

ঢাকা : দেশের উন্নয়ন ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে আগামী নির্বাচন ‘অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ’ বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই নির্বাচন বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ; বলেন তিনি।

যুবলীগের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রবিবার (১১ নভেম্বর) গণভবনে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানাতে এলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আমি আশা করব অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোও নির্বাচনে আসবে। কারণ, একটা রাজনৈতিক দল নির্বাচন না এলে সেই দল শক্তিশালী হয় না।

বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত ঘোষণা করার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা দারিদ্র্য ৪০ ভাগ থেকে ২১ ভাগে নামিয়ে এনেছি। আবার ক্ষমতায় এলে আরো চার থেকে পাঁচ ভাগ কমাতে পারব।

যুব সমাজের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, যদি ত্যাগের মনোভাব থাকে তাহলে সফল হতে পারবে। যারা রাজনীতি করবে তাদেরকে বঙ্গবন্ধুর ত্যাগ ও আদর্শ থেকে শিক্ষা নিতে হবে। কি পেলাম, কি পেলাম না সেই হিসাব করবেন না, হিসাব করবেন কতটুকু জনগণকে দিলাম, দিতে পারলাম।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, লোভকে জয় করা আর ভয়কে জয় করা, এটা যে করতে পারবে সেই পারবে দেশ ও জাতির সেবা করতে। আর সম্পদের পাহাড় গড়লে ওই সম্পদই থাকবে। মরতে তো একদিন হবেই। কিন্তু দেশকে কিছু দিয়ে দেওয়া যাবে না। ভোগে স্বার্থকতা নেই, ত্যাগেই স্বার্থকতা।

বিএনপি-জামায়াতের সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় থাকার সময় বারবার আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে তদন্ত করা শুরু করে। সেই তদন্ত করতে গিয়েও তারা কিছুই পায়নি। পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে আমার পরিবারের বিরুদ্ধে বিশ্ব ব্যাংক ‘দুর্নীতি’ খোঁজার চেষ্টায় তদন্ত করতে গিয়ে কিছুই পায়নি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে আমরা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ নির্মূল করব। তরুণ সমাজ কিভাবে গড়ে উঠবে তার পরিকল্পনা আমরা দিয়েছি।

এসময় তিনি ২০৪১ এ ২১০০ সালের পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে বলেন, “সেই বাংলাদেশ হবে বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ, যে বাংলাদেশের স্বপ্ন জাতির পিতা দেখেছেন।”

অনুষ্ঠানের শুরুতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শেখ হাসিনাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক তার বক্তৃতায় শেখ হাসিনার সরকারের সময় বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসূচি এবং যুবলীগের পক্ষ থেকে নেওয়া নানা কাজের কথা উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য ফারুক হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দিন মহি, দপ্তর সম্পাদক কাজী আনিসুর রহমান, প্রকাশনা সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বাবলু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, উত্তরের সভাপতি মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।

একুশে/এসসি