১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫, রবিবার

আশুলিয়ায় কথিত বন্দুক যুদ্ধে ডাকাত নিহত, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

প্রকাশিতঃ সোমবার, নভেম্বর ১২, ২০১৮, ১২:২৩ অপরাহ্ণ

ঢাকা  : আশুলিয়ার পুলিশের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে শামিম (৪৫) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা করেছে পুলিশ।

সোমবার (১২ নভেম্বর) ভোররাতে আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ী এলাকায় এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত শামীম যশোর জেলার কোতোয়ালী থানার মহেন্দপুর গ্রামের মৃত আবুল খায়েরের ছেলে।

এর আগে রবিবার রাত ৯ টার দিকে ধামরাইয়ের কালামপুর এলাকা থেকে ডাকাত শামীমকে আটক করে ধামরাই থানা পুলিশ। সে নিজেকে ডিবি পুলিশের ওসি পরিচয় দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করত দাবি পুলিশের।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, রবিবার রাত ৯ টার দিকে ধামরাইয়ের কালামপুর এলাকা থেকে ডাকাত সর্দার শামিমকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ডিবি পুলিশের ওসি পরিচয় দিয়ে একাধিক গ্রুপে বিভক্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করার কথা শিকার করেছে।

তিনি আরও বলেন, শামীমের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত সাভার, ধামরাই, গাজিপুর সহ বিভিন্ন থানায় ৮টি মামলার রেকর্ড পাওয়া গেছে।

তিনি আরো বলেন, শামীমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সোমবার ভোররাতে ধামরাই ও আশুলিয়ার থানা পুলিশ আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ি এলাকায় ডাকাতদের সন্ধানে গেলে আগে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছুড়ে। এসময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

দুই পক্ষের গুলি বিনিময়ের ঘটনায় তার মৃত্যু হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি অস্ত্র, গুলি, রামদা, চাইনিজ কুড়ালসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

একুশে/আরসি/এসসি