১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫, রবিবার

৩০ ডিসেম্বরই ভোটের সিদ্ধান্ত : ইসি সচিব

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮, ৬:১৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধি : ৩০ ডিসেম্বরই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলাল উদ্দিন আহমদ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তিন সপ্তাহ নির্বাচন পেছানোর দাবি করেছিল। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবি কমিশন চুলচেরা বিশ্লেষণ করেছে উল্লেখ করে ইসি সচিব বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পেছানোর দাবি যুক্তিসঙ্গত ও বাস্তবসম্মত নয়। তাদের দাবিগুলো আমরা চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ৩০ ডিসেম্বরই ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) বিকালে নির্বাচন কমিশনের মিডিয়া সেন্টারে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এসব কথা জানান। এর আগে বেলা ১১টা থেকে ১২ পর্যন্ত টানা এক ঘণ্টা পর্যন্ত বৈঠক করে নির্বাচন কমিশন। বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছাড়াও অন্যান্যা কমিশনারসহ নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই উল্লেখ করে ইসি সচিব বলেন, জানুয়ারি মাসে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। তাবলিক জামাতের পক্ষ থেকে আমাদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।এতে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নিয়ে থাকেন এবং লক্ষাধিক আইনশৃঙ্খলাবাহিনী মোতায়েন থাকেন। তাছাড়া জানুয়ারিতে ভোটের ক্ষেত্রে কিছু আইনি ও সাংবিধানিক বিষয় রয়েছে। কোথাও পুনর্নির্বাচন, অনিয়ম হলে তা তদন্ত, গেজেট প্রকাশের বিষয়ও রয়েছে।

ঐক্যফ্রন্টের এমন অভিযােগের প্রক্ষিতে ইসি সচিব বলেন, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। নির্বাচন কমিশন নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই গ্রহণ করতে পারে। অন্য কারও সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশন কখনও গ্রহণ করেনি। তবে, নির্বাচন কমিশনের অংশীজন রাজনৈতিক দল। তারা বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিতে পারেন।

ইসি সচিব আরো বলেন, বিদেশি পর্যবেক্ষক নয়, আমরা এ দেশের নাগরিক, যে ১০ কোটি ৪১ লাখ ভোটার তাদের বিষয়গুলো আগে বিবেচনা করব। তবে, বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সবসময় আমরা স্বাগত জানাই।

একুশে/এসসি