১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫, রবিবার

ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ‘গাজা’

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৮, ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ

তামিলনাড়ু: ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে আজ শুক্রবার ভোররাতে ঘূর্ণিঝ়ড গাজা আঘাত হেনেছে। রাজ্যের নাগাপট্টনম এলাকায় ঝড়ের প্রথম এবং সবচেয়ে জোরালো আঘাত লাগে৷এরপর তিরুভরুর, থাঞ্জাভুরে ঝড়ের প্রচণ্ড প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে। বহু বাড়িঘর ভেঙে গেছে। বহু গাছ উপড়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও জানা যায়নি। উপকূলবর্তী এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে।

দেশটির আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে।বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘন্টায় ১২০ কিলোমিটার৷ঘুর্নিঝড়ের পর ভারী বৃষ্টিপাতও শুরু হয়৷মোট ছয়টি জেলার ৭৬ হাজার ২৯০ জন মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, ভোর ৩টে ১৫ মিনিটে আবহাওয়া দফতরের বুলেটিনে ঝড়ের আছড়ে পড়ার খবর দেওয়া হয়। সমু্দ্রের দিকেও নজরদারি চালানো হচ্ছে বলে জানানো হয়। দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঝড়ের দাপট দেখা যায়।

চেন্নাইয়ের আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, প্রায় ৭৬ হাজার মানুষকে সরানো হয়েছে উপকূলবর্তী এলাকা থেকে। বিভিন্ন জায়গায় হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই নাগাপট্টনম, তিরুওয়ারুর, কুড্ডালোর এবং রামনাথপুরম-সহ সাত জেলার সব স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে৷ নৌসেনাবাহিনী জানিয়েছে, সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷

তামিলনাড়ু রাজ্য দুর্যোগ মোকাবিলা দফতর জানিয়েছে, সমুদ্র তীরবর্তী এলাকা থেকে তুলে আনা লোকদেরকে ৩০০টি ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। নাগাপট্টিনম, পুড়ুকোট্টাই. রামনাথপুরম ও তিরুভারুরে সেই শিবির খোলা হয়েছে।

নাগাপট্টিনমে সবচেয়ে বেশি ঝড়ের প্রভাব দেখা গিয়েছে। ফলে সেখানে স্কুল, কলেজ সব ছুটি দেওয়া হয়েছে।