১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার

বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের শেষ দিনের সাক্ষাৎকার চলছে, আছেন তারেকও

প্রকাশিতঃ বুধবার, নভেম্বর ২১, ২০১৮, ২:৪৪ অপরাহ্ণ

ঢাকা : গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারর্সন কার্যালয়ে দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের শেষ দিনের মতো সাক্ষাৎকার চলছে। ঢাকা বিভাগ, সাংগঠনিক বিভাগ ফরিদপুর ও টাঙ্গাইলের বিভিন্ন আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্য দিয়ে বুধবার সকালে এই সাক্ষাৎকার শুরু হয়। পূর্বের মতো সাক্ষাৎকারে ভিডিও কলের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন তারেক রহমানও।

বিএনপির পার্লামেন্টারি বোর্ডের সাক্ষাৎকারে স্কাইপের মাধ্যমে তারেক রহমানের অংশ নেওয়াকে আইনের পরিপন্থী হিসেবে উল্লেখ করেছিল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ নিয়ে তিনি ইসি’র কাছে অভিযোগও করেন। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইসি’র কিছুই করণীয় নাই বলে জানানো হয়। তাছাড়া দণ্ডিত সাজাপ্রাপ্ত আসামি তারেক রহমান দেশের বাইরে থাকায় তার উপর নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের পর্যায়ে পড়ে না বলেও জানিয়ে দেন ইসি।

ইসি’র এমন সিদ্ধান্তের পর বিটিআরসি কর্তৃক গুলশান এলাকায় স্কাইপ বন্ধ করে দেওয়া হয়। দু’দিন স্কাইপ বন্ধ থাকার পর গতকাল বিকেলে আবার স্কাইপ খুলে দেয় বিটিআরসি। তবে স্কাইপ বন্ধ থাকলেও গতকাল ভিডিও কলের মাধ্যমে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয় তারেক।

শেষ দিন পর্যন্ত ৩শ’ আসনে প্রায় দুই হাজারের মতো মনোনয়ন প্রত্যাশীর সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছে বলে পার্লামেন্টারি বোর্ড সুত্র জানিয়েছে। বিএনপির সাংগঠনিক কাঠামো অনুযায়ী ঢাকা বিভাগের ৮ জেলায় ৫০টি আসন, ময়মনসিংহ বিভাগের ৪ জেলায় ২৪ আসন এবং ফরিদপুর বিভাগের ৫ জেলায় ১৫ আসনের জন্য ছয় শতাধিক প্রার্থীর এই সাক্ষাৎকারে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

গত কয়েক দিনের মত বুধবারও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে ভিডিও কলের মাধ্যমে মনোনয়নপ্রার্থীদের সঙ্গে কথা বলছেন বলে সাক্ষাৎকার দিয়ে আসা মনোনয়নপ্রত্যাশীরা জানিয়েছেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন সাক্ষাৎকার শেষে গণমাধ্যমকে বলেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে কাজ করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন (তারেক রহমান) দল থেকে যাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে, সবাই তার জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবেন। গণতন্ত্রের মুক্তি ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।

পার্লামেন্টারি বোর্ডে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মাহবুবুর রহমান, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহুমদ চৌধুরী উপস্থিত থাকলেও অনউপস্থিত ছিল রফিকুল ইসলাম মিয়া।

মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ছাড়াও দলের সংশ্লিষ্ট জেলা ও মহানগর কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং বিভাগীয় সাংগঠনিক ও সহ সাংগঠনিক সম্পাদকরা সাক্ষাৎকারে উপস্থিত রয়েছেন।

একুশে/এসসি