১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫, মঙ্গলবার

ওসির দুই বছর পূর্তি, থানাতেই জমকালো আয়োজন (ভিডিও)!

প্রকাশিতঃ শনিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রাম : সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিসেবে মো. রফিকুল হোসেনের দুবছর পূর্তি হয়েছে শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর)।

এ উপলক্ষে শুক্রবার সন্ধ্যায় থানা প্রাঙ্গণে ওসির উষ্ণ সংবর্ধনার আয়োজন করে সাতকানিয়া থানা। থানা কম্পাউন্ডে বিশাল স্টেইজ, স্টেইজে ব্যানার টানিয়ে তাতে লেখা হয় চৌকস, বিচক্ষণ, দূরদর্শী, সৎ ও নিষ্ঠাবান পুলিশ অফিসার রফিকুল হোসেনের সাতকানিয়া থানায় দুইবছর পূর্তি উপলক্ষে উষ্ণ সংবর্ধনা।

সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ঝলকানো এই সংবর্ধনার আয়োজনে ছিল নাচ-গান আর ভুড়িভোজ। আয়োজন করা হয় প্রায় ৩শ’ মানুষের খাবার। কাটা হয় ৩০ পাউন্ড ওজনের কেক।

পুলিশ পরিবারের সদস্য ছাড়াও এতে সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মোবারক হোসেন, সাতকানিয়া সার্কেলের এএসপি হাসানুজ্জামান মোল্লা, স্থানীয় সাংবাদিক, নানা শ্রেণীপেশার মানুষ অংশ নেন।

এ সংক্রান্ত একুশে পত্রিকার হাতে আসা একাধিক ভিডিওতে দেখা যায়, অনুষ্ঠানে এক পাশে চলছে খাবার, অন্যপাশে মঞ্চের সামনে নাচ-গান। কিছু তরুণকে দেখা যায়, একদল নারীকে মাঝখানে রেখে ঘুরে ঘুরে নাচতে। মাঝে মাঝে ওসিকে ঘিরেও নাচতে দেখা যায় কাউকে কাউকে। এসব দারুণ উপভোগ করছেন ওসি, আর মাঝে মাঝে তা ভিডিও কলে দূরে অবস্থানরত স্বজন-শুভার্থীদের দেখাতেও দেখা যায় ওসি রফিকুল হোসেনকে।

অনুষ্ঠানশেষে ওসি সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন। তাতে এএসপি হিসেবে তার প্রমোশন হয়েছে এবং রোববার অর্ডার হবে বলে জানান। যেদিন সাতকানিয়া থানা থেকে বিদায় নেবেন সেদিন আরেকটি জম্পেশ আয়োজনের ঘোষণা দেন ওসি।

তিনি বলেন, পুলিশ সদস্যরা কেবল আসামী ধরা, তিক্ততায় থাকেন। আনন্দের বিপরীতে তাদের চলতে হয়। এ কারণে এই বিনোদনের আয়োজন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাতকানিয়া থানা পুলিশের এক সদস্য একুশে পত্রিকাকে জানান, দুইদিন ধরে প্রস্তুতি নিয়ে থানা কম্পাউন্ডে এই আয়োজন করা হয়। থানা পুলিশরা প্রস্তুতির কাজে ব্যস্ত থাকায় গত দুদিন থানার স্বাভাবিক কাজকর্ম ব্যাহত হয়। শুক্রবারও ছিল সারাদিন একই অবস্থা। সাহায্যপ্রার্থী লোকজন থানায় এসে খালি হাতে ফিরে গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ওসি রফিকুল হোসেন একুশে পত্রিকাকে বলেন, থানার ভেতরেই একটি কক্ষে অনুষ্ঠান করেছি। এতে সাহায্যপ্রার্থী লোকজনের কোনো অসুবিধা হয়নি। পুলিশরা বিনোদনের সুযোগ পায় না। এজন্য দুবছর পূর্তিতে তারাই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। শুধু তাই নয়, বিশাল সাইজের এক কেকও কেটেছে তারা।

পুলিশের বিনোদনে আপত্তি নেই। থানা কম্পাউন্ডে আয়োজন এবং উপলক্ষটা আপনার কর্মস্থলে দুবছর পূর্তি-কেমন বেমানান না বিষয়টা-এ প্রশ্নে ওসি বলেন বেমানান হবে না।

ওসির দুইবছর পূর্তিতেই এতবড় অনুষ্ঠান, আর সেখানে আপনি অতিথি-এমন প্রশ্নে সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মোবারক হোসেন একুশে পত্রিকাকে বলেন- কী আয়োজন, কেন আয়োজন আমি কিছুই জানি না। ওসি গতকাল বললেন, স্যার থানায় একটা অনুষ্ঠান আছে, আপনি আসলে খুশি হবো। গিয়েই দেখি খাবার-দাবার নাচগান। গিয়ে তো আর আমি চলে আসতে পারি না।

উপলক্ষ এবং থানা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠানের আয়োজন সমীচিন হয়নি বলে স্বীকার করেন ইউএনও।