বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

জিডিপি ‘উন্নয়ন’ পরিমাপের চূড়ান্ত প্যারামিটার নয়

প্রকাশিতঃ রবিবার, জুন ২১, ২০২০, ৯:৩৯ অপরাহ্ণ


টিপু সুলতান সিকদার : বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ‘উন্নয়ন’ শব্দটার ব্যাপারে আমি সত্যিই সন্দিহান, চিন্তিত। আমরা কি সত্যিই জানি ‘উন্নয়ন’ শব্দটির অর্থ আসলে কী!

নোবেলবিজয়ী ড. অমর্ত্য সেন বলেছিলেন ‘উন্নয়ন হলো পরাধীনতার অপসারণ, স্বাধীনতা নিশ্চিতকরণ।’

হ্যাঁ, এটাই সেই বক্তব্য যার জন্য তিনি নোবেল জিতেছেন। মানুষের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হল প্রকৃত উন্নয়ন, যা আমরা বলতে পারি।

এটা সত্য যে, জিডিপি ‘উন্নয়ন’ পরিমাপ করার চূড়ান্ত প্যারামিটার নয়। একটি গুরুত্বপূর্ণ জিডিপি প্রবৃদ্ধি বিশ্বের দিকে একটি আইওয়াশ, যেখানে অন্যান্য প্যারামিটার জোর দেওয়া হয় না। যদি আমরা বড়লোক এবং দরিদ্র আয়বিচ্যুতি বিবেচনা করি, তাহলে বাংলাদেশে এখনো ধনী-গরীবের ব্যবধান অনেক বেশি।

আমি জানি না কেন দেশ অবকাঠামোগত উন্নয়ন নিয়ে এত ব্যস্ত! যেখানে স্বাস্থ্যব্যবস্থার মত মৌলিক চাহিদা খুবই দুর্বল, সেখানে সেতু-কালভার্টের উন্নয়ন-সংস্কার দিয়ে কী হবে? শুধু সেতু-কালভার্ট দিয়েই কি উ্ন্নয়ন প্রকাশ করা যায়?

হ্যাঁ, আমি মানবউন্নয়ন সূচক (এইচডিআই) এর কথা বলছি, ম্যাক্রো অর্থনৈতিক দিক থেকে উন্নয়ন পরিমাপ করার জন্য একটি বাস্তব প্যারামিটার। প্রতিটি জনগণের মৌলিক সুবিধা নিশ্চিত করাই একটি দেশের প্রকৃত উন্নয়ন।

৪ দিন আগে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসকারী আমাদের এক কাছের বন্ধু রাসেল ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছিল মুমূর্ষু বাবার জন্য অক্সিজেন সুবিধা চেয়ে। গতকাল জানলাম, তার বাবা আর নেই। সামান্য অক্সিজেন সুবিধার অভাবে নাই হয়ে গেলেন তিনি।

শোনে খুবই খারাপ লাগছে এবং বর্তমান সময়ে এটিই এখন স্বাভাবিক খবর। মানুষ এই আছে, এই নেই। করোনা মহামারি বলে দিচ্ছে চট্টগ্রামসহ দেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থা কেমন? করোনা না আসলে কখনো বুঝতে পারতাম না বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাত কতটা দুর্বল এবং দুর্বৃত্তে ভরা।

চলুন দেখা যাক, বর্তমান বাজেট ইস্যু এবং এর গুরুত্ব এবং বাস্তবায়ন। স্বাস্থ্য, শিক্ষা ইত্যাদি মৌলিক চাহিদার প্রতি প্রকৃত উন্নয়নে ইতিবাচক প্রভাব বিস্তার করে। আমরা সরকার এবং আমাদের নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ করব তথাকথিত উন্নয়নের পরিবর্তে বাস্তব উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে। প্রথমত মৌলিক চাহিদাপূরণ, তারপর অবকাঠামোগত উন্নয়ন।

টিপু সুলতান সিকদার : প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বার