বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, জুলাই ৩, ২০২০, ৩:৪৮ অপরাহ্ণ


যশোর : যশোর জেলার বেনাপোলের ধন্যখোলা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে মুহাম্মদ রিয়াজুল মোড়ল (২৫) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন।

নিহত রিয়াজুল বেনাপোল পোর্ট থানাধীন বাহাদুরপুর ইউনিয়নের আব্দুল জব্বারের ছেলে।

৪৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ধন্যখোলা ক্যাম্পের কমান্ডার সুবেদার সরোয়ার হোসেন বলেন, আজ (শুক্রবার) ভোরে রিয়াজুল মাদক নিয়ে দেশে ফিরে আসার সময় ভারতের বাঁশঘাটা ক্যাম্পের বিএসএফ-এর একটি টহল দল তাকে গুলি করে হত্যা করে মৃতদেহ বাংলাদেশের ধাণ্যখোলা সীমান্তে ফেলে রেখে চলে যায়। সকালে মাঠে কাজ করতে গিয়ে ধাণ্যখোলা গ্রামের লোকজন মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে বিজিবিকে খবর দেয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানান, বিজিবি ও স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

এর আগে গত ১০ জুন বেনাপোলের অগ্রভুলোট সীমান্তে বাংলাদেশি এক গরু ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করে বিএসএফ। নিহত শরীফুল যশোরের শার্শা থানার রাজগঞ্জ গ্রামের মৃত ইছহাক আলীর ছেলে।

মানবাধিতার সংস্থা আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে জুন মাসের মধ্যে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে ১৮ জন বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছিল, আর নির্যাতনে মারা গেছেন দুই জন। আর ২০২০ সালের প্রথম ছয়মাসে সীমান্তে হত্যাকাণ্ডের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ জনে।

আসকের তথ্যমতে, ২০১৯ সালে বিএসএফের হাতে মোট ৪৩ জন বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছিলেন। এর মধ্যে ৩৭ জনই গুলিতে নিহত হন। বাকি ৬ জন নির্যাতনে মারা যান। আগের বছর ২০১৮ সালে এ সংখ্যা ছিল ১৪ জন।

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯ সালের পুরো সময়টায় ভারতের সীমান্তরক্ষা বাহিনী বা বিএসএফ’র হাতে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪৩ জন বাংলাদেশি-যাদের মধ্যে ৩৭ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন গুলিতে, আর বাকি ৬ জনকে নির্যাতন করে মারা হয়।

মানবাধিকার সংগঠনগুলোর সংগ্রহ করা তথ্যে দেখা গেছে, এ বছর জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত সীমান্তে ২৫ জন বাংলাদেশি নাগরিক নিহত হয়েছেন, যাদের মধ্যে ২১ জনেরই মৃত্যু হয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বা বিএসএফের সৈন্যদের গুলিতে। আর ৪ নির্যাতনে মৃত্যু বরণ করন।