বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

খাশোগি হত্যা: ২০ সৌদি কর্মকর্তার বিচার শুরু তুরস্কে

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, জুলাই ৩, ২০২০, ৩:৫০ অপরাহ্ণ


তুরস্ক : সৌদি রাজপরিবারের সমালোচক ও সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় অভিযুক্ত ২০ সৌদি কর্মকর্তার বিচার আজ (শুক্রবার) তুরস্কে শুরু হয়েছে। সকালে ইস্তাম্বুলের একটি আদালতে এই হত্যা মামলার বিচার কাজ শুরু হয়।

সৌদি আরব অভিযুক্তদের হস্তান্তরের আবেদনে সাড়া না দেওয়ায় তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচার কাজ শুরু হয়েছে।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন সাংবাদিক জামাল খাশোগি। বিশ্বজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হলে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, জিজ্ঞাসাবাদের সময় কর্মকর্তাদের ভুলে নিহত হন ওই সাংবাদিক। তবে তার মৃতদেহের কোনও সন্ধান দেয়নি তারা।

গত বছরের ডিসেম্বরে এই ঘটনায় পাঁচ জনের বিরুদ্ধে প্রাণদণ্ডের রায় ঘোষণার কথা জানায় সৌদি আরব। সম্প্রতি খবর এসেছে, খাশোগির পরিবার দোষী ব্যক্তিদের ক্ষমা করে দিয়েছেন।

তবে তুরস্ক আলাদাভাবে এই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ও বিচার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইস্তাম্বুলের কৌঁসুলিরা খাশোগিকে হত্যার অভিযোগে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দুই সাবেক সহযোগী এবং আরও ১৮ জনকে অভিযুক্ত করেছে। স্বয়ং যুবরাজ এই হত্যার নির্দেশ দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

বিচারের মধ্য দিয়ে খাশোগির মরদেহ কোথায় সে সম্পর্কে নতুন তথ্য-প্রমাণ বেরিয়ে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তার বাগদত্তা হাতিস চেঙ্গিস। তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি তুরস্কের এই বিচারকাজের মধ্য দিয়ে খাশোগির মরদেহের সন্ধান মিলবে এবং হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে নতুন তথ্য-প্রমাণ বেরিয়ে আসবে।’

জামাল খাশোগি একসময় সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ছিলেন। পরে তিনি অবস্থান পরিবর্তন করেন। মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টে তিনি সৌদি রাজপরিবারের নানা কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে কলাম লিখতেন। এ কারণেই চরমভাবে ক্ষুব্ধ ছিলেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান।