শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭

ভূতুড়ে বিদ্যুৎ বিল: ২৯০ জনকে শাস্তির সুপারিশ, সচিবের দুঃখ প্রকাশ

প্রকাশিতঃ রবিবার, জুলাই ৫, ২০২০, ১১:০০ অপরাহ্ণ


ঢাকা : বিদ্যুৎ গ্রাহকদের ভূতুড়ে বিল পাঠিয়ে হয়রানি করার কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৯০ জনকে শাস্তির সুপারিশ করেছে বিদ্যুৎ বিভাগের গঠিত টাস্কফোর্স। আজ (রোববার) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়ে বিদ্যুৎ সচিব সুলতান আহমেদ বিদ্যুতের বিল নিয়ে গ্রাহক ভোগান্তির কারণে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

বিদ্যুৎ সচিব জানান, এরইমধ্যে বেশ কয়েকজনের নিয়োগ বাতিল, চাকরি থেকে অব্যাহতিসহ আরো বিভিন্ন ধরনের শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এই অনিয়মের বিষয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরির কাজ চলছে। গ্রাহকদের থেকে নেয়া অতিরিক্ত অর্থ জুন মাসের বিলের সাথে সমন্বয় করা হবে।

কনজুমার্স এসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ক্যাব)-এর সভাপতি গোলাম রহমান বলেন, অপরাধীদের চিহ্নিত করা এবং জন্য শাস্তি দেয়াতে ভোক্তা সাধারণ খুশি হবেন। একইসাথে তাদের হয়রানির সুরাহা করতে হবে; তাদের কাছ থেকে যথাযথ বিল আদায় করতে হবে।

উল্লেখ্য, করোনাকালীন সাধারণ ছুটির সময়ে মার্চ ও এপ্রিল মাসের অনুমাননির্ভর বিল তৈরিতে জড়িতদের চিহ্নিত করতে ২৫ জুন টাস্কফোর্স গঠন করে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়। এছাড়াও ছ’টি বিতরণ কোম্পানিকে নিজস্ব তদন্ত কমিটির মাধ্যমে দোষীদের চিহ্নিত করতে সাতদিনের সময় বেঁধে দেয় সরকার।

তবে, ভূতুড়ে বিল কাণ্ডে সরকারের সিদ্ধান্ত নেবার আগেই বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে। এর মধ্যে ঢাকার একাংশের বিতরণ কোম্পানি ডিপিডিসিতে ৪ প্রকৌশলীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া, কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে স্থানীয় কার্যালয়ের ৩৬ নির্বাহী প্রকৌশলীকে। ওদিকে ডেসকো এবং উত্তরবঙ্গের নেসকোর কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারীকেও বরখাস্ত করা হয়েছে।