বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭

লোহাগাড়ায় জঙ্গি তৎপরতা, ‘নব্য জেএমবি’র নেতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, জুলাই ৭, ২০২০, ২:৪৬ অপরাহ্ণ

এ. কে. আজাদ, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) : চট্টগ্রামের লোাহাগাড়ায় গোপন বৈঠক ও প্রশিক্ষণ চলাকালে ‘নব্য জেএমবি’র নেতা মো. আব্দুল কাইয়ুমকে (২৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিট।

সোমবার (৬ জুলাই) দিবাগত রাত পৌনে ২ টার দিকে উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের পদুয়া এসিএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় ‘নব্য জেএমবি’র ৮-৯ জন সদস্য পালিয়ে যায় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে ৪টি মোবাইল সেট, ৮-১০টি জিহাদী বই, জঙ্গি হামলা সংক্রান্ত ৬-৭টি মোবাইলের স্ক্রিনশর্ট কপি ও বেশকিছু প্রচারপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার আব্দুল কাইয়ুম লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের নয়া পাড়ার আব্দুস শুক্কুরের ছেলে।

কাইয়ুম পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনিসহ গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তিরা ‘নব্য জেএমবি’র বিভিন্ন স্তরের সদস্য বলে বলে স্বীকার করেন।

এ ঘটনায় এন্টি টেররিজম ইউনিট ঢাকার পুলিশ পরিদর্শক মো. সোলায়মান শেখ বাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা করেছেন। মামলায় আব্দুল কাইয়ুমসহ ১০ জনকে আসামি করা হয়।

এন্টি টেররিজম ইউনিট ঢাকার পুলিশ পরিদর্শক সোলায়মান শেখ বলেন, আটকের পর জঙ্গি নেতা কাইয়ুম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পালিয়ে যাওয়া তার দুই সহযোগীর নাম-ঠিকানা জানিয়েছে। তবে বাকি ৬-৭ জনের পরিচয় কৌশলে এড়িয়ে যাচ্ছে। তার সহযোগীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

জানতে চাইলে লোহাগাড়া থানার ওসি জাকির হোসাইন মাহমুদ বলেন, থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে এন্টি টেররিজম ইউনিট অভিযান চালিয়েছে। অভিযানে নব্য জেএমবি’র একজনকে চারটি মোবাইল ফোন, আটটি জিহাদি বই, স্ক্রীন শর্ট ও আরও কিছু আলামতসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলাটির তদন্তভার এন্টি টেররিজম ইউনিট নিয়েছে।