মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

সময় | বিক্রম জিৎ সেন

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৭, ১১:২২ অপরাহ্ণ

১ম খন্ড

-চল,আজ রিক্সায় যাবো তোমার সাথে!!

-সরি,আমার একটু কাজ আছে,আমার যেতে দেরী হবে। তুমি তোমার ফ্রেন্ডদের সাথে যাও।

-নাহ,আজ আমি তোমার সাথেই যাবো। তুমি একদিন আমায় নিয়ে ঘুরতে চেয়েছিলে না? আজ চল, আমার বাসায় আমায় পৌঁছে দেবে।

-সময় বদলেছে,সুমি,সময় অনেক বদলেছে। সেদিনের আমি আর আজকের আমির মধ্যে পার্থক্যটা আকাশ পাতাল।

-তার মানে আমি আজ তোমার কাছে কেউ না? অথচ, একদিন আমি ফোন না ধরলে তুমি মেসেজের বন্যা করে দিতে।

-(দীর্ঘশ্বাস ফেলে)তুমি বোধহয় শুনোনি,সময় বদলেছে।
আমি বুঝেছি, সেদিনের সেই অনুভূতিটা “ভালোবাসা” ছিলো না, ছিলো “ভালোলাগা”! অবশ্য তারজন্য ধন্যবাদটা তোমারই প্রাপ্য। তুমি যদি সেদিন আমার সেই “ভালোবাসা” নামের “ভালোলাগা”কে প্রশ্রয় দিতে,আমি হয়তো আজকের আমি থাকতাম না।আমি হয়তো এযুগের “মজনু”,”ফরহাদ”,”রোমিও” বা “দেবদাস” হয়ে রাস্তায় ট্রাফিক সামলাতাম অথবা কবিতা পড়তাম।
আচ্ছা, ওসব পুরোনো কাসুন্দি বাদ দাও, আমার ভাইরা আমার জন্য অপেক্ষা করছে। যেতে হবে আমাকে।

-তুমি আসলেই অনেকটা বদলে গেছো। সেই “তুমি” আর আজকের “তুমি”র মধ্যের পার্থক্যটা আকাশ আর পাতালের। যে তুমি আমাকে না দেখে থাকতে পারতে না বলে মোবাইলের ওয়ালপেপারে আমার ছবি সেট করে রেখেছিলে, আমার ভয়েস শুনে উঠার জন্য আমার ভয়েস এলার্ম হিসেবে সেট করে রেখেছিলে, সেই তুমি আজ আমায় গুণছোই না??? আমার সাথে রিক্সায় যাওয়ার সুযোগ হেলায় ছেড়ে দিলে???!

-ওই খালি, এদিক আসো। ম্যামরে নিয়া যাও, আর এই নাও টাকা। যাও, সাবধানে যাবা।

রিক্সাওয়ালাকে ১০০ টাকার নোট হাতে দিয়ে বাইক অন করে চলে যায় তানজীম।আর অশ্রুসিক্ত চোখে সেপানে তাকিয়ে রয় সুমি……………………

লেখক: বিক্রম জিৎ সেন
টেক্সটাল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট,
পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।