সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬

‘যুক্তির সিঁড়ি বেয়েই একাত্তরে মুক্তি’

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৮, ২০১৯, ৬:০৪ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কমার্স কলেজ ডিবেটিং সোসাইটি’র সহযোগিতায় সরকারি কমার্স কলেজে প্রীতি বিতর্ক কলেজ পাঠাগারে অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় এবারের স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচিতে প্রথমবারের মতো বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজনের করা হয়।

সংসদীয় ধারার প্রীতি বিতর্কে নির্ধারিত বিষয় ছিল- “এই সংসদ মনে করে, কেবলমাত্র অর্থনৈতিক উন্নতি পূরণের মাধ্যমে স্বাধীনতা যুদ্ধের লক্ষ্য বাস্তবায়ন সম্ভব”।

এই বিষয়ে সরকারি দল ক্র্যাকপ্লাটুন-এর হয়ে অংশ নেয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ডিবেটিং সোসাইটি’র সাংগঠনিক সম্পাদক রাফিদ ফারহান, ইউএসটিসি এফসেট ডিবেট ক্লাবের কনভেনার কাজী তাওকীর জাহিন ও সিসিডিএসের জয়েন্ট সেক্রেটারি তাসফিয়া আক্তার অনন্যা।

বিরোধী দল অপারেশন জ্যাকপট দলের হয়ে অংশ নেয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অব ডিবেট-এর সেক্রেটারি দীপ্ত নন্দী, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সেক্রেটারি মার্সেল আনিক হালদার, সিসিডিএসের সেক্রেটারি হিমেল দে শুভ।

বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সভাপতিত্ব করেন ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সিসিডিএসের চিফ মডারেটর মোহাম্মদ কামাল হোসাইন। মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যাংকার সাইফ চৌধুরী। বিচারক ছিলেন অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক ও সিসিডিএস’র মডারেটর ফারজানা আইরিন ও দৃষ্টি চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক সাবের শাহ।

কলেজের কদমতলায় অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক রাজিব চৌধুরীর সঞ্চালনায় ও স্বাধীনতা দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হাশেম’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ আইয়ুব ভূঁইয়া।

বিশেষ অতিথি ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ফেরদৌস আরা বেগম, ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মোহাম্মদ শাহ আলম, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর আবু মোহাম্মদ রহিমুল্লাহ, সহযোগী অধ্যাপক সুসেন কুমার বড়ুয়া, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান রিজওয়ানা জেরিন খান, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আবু সাইদ, শিক্ষক পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির চৌধুরী, সিসিডিএস’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট তাওহীদুল কবির ও প্রাক্তন সেক্রেটারি সাদ্দাম হোসেন সোহাগ।

অনুষ্ঠানে সিসিডিএস আয়োজিত- “আমার দেশ, আমার গর্ব” শিরোনামে দেশ নিয়ে গর্বের বিষয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস লিখন প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান করা হয়। প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আরাফাত।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন শাফিন চৌধুরী, সানজিদা আফরোজ সিমি, কাজী মাইনুদ্দীন মাহিন, তামান্না নারমিন তনিমা, আল জোবায়ের আলিম, সাবরিনা মমতাজ মিথুন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর মোহাম্মদ আইয়ুব ভূঁইয়া বলেন, ‘পাকিস্তান রাষ্ট্রের জন্মের পর হতে আমাদের উপর অযৌক্তিক আচরণ ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে যৌক্তিক প্রতিবাদ করতে গিয়েই বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্ম। যুক্তিবোধ সমৃদ্ধ না হলে কোনো শক্তিই টিকে থাকতে পারে না। পাকিস্তানও পারেনি বলে বাংলাদেশের আগে স্বাধীন হয়েও তারা এখন আমাদের অনুসরণ করছে, এটাই আমাদের গর্বের জায়গা।’

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিসিডিএস’র প্রেসিডেন্ট আর্সেল আজিম মোহন, সিসিডিএস কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহেদ, আরাফাত ইসলাম, আহসান আলী রিয়াজ, পুজা বড়ুয়া, তৌফিকুর রহমান, মোঃ ইসমাঈল, আতিক এহসান, আজমাইন সাদমান, সাদমান হোসেন প্রমুখ।