২৫ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, সোমবার

শ্রীলংকার বিপক্ষে সাকিবের খেলা অনিশ্চিত!

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০১৯, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ


লন্ডন: বিশ্বকাপে বাংলাদেশ শিবিরে এলো বড় ধরনের এক দুঃসংবাদের ধাক্কা। মঙ্গলবার ব্রিস্টলে শ্রীলংকার বিপক্ষে সাকিব আল হাসানের মাঠে নামা অনিশ্চিত!

সূত্রের খবর, আবার ইনজুরির কবলে সাকিব। তার পায়ের ব্যথা বেড়েছে। যে কারণে সোমবার অনুশীলন করতে দেখা যায়নি তাকে।

তবে কী আজ সাকিব ছাড়াই মালিঙ্গাদের মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ? গতকাল এমন প্রশ্ন ছোঁড়া হয়েছিল টিম ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে। সরাসরি না বলে একটু ঘুরিয়ে সাংবাদিকদের সে প্রশ্নের জবাব দিলেন সুজন।

তিনি বলেন, ‘সাকিবের পায়ে ব্যাথা আছে। সাকিব খেলবেই এমন নিশ্চয়তা দিতে পারছি না। তবে সাকিবের খেলা অনিশ্চিত, তাও বলব না। দেখা যাক কি হয়!’

এরপরই সুজন কথা বলেন মাশরাফির বিষয়ে। তিনি জানান, ‘অধিনায়ক মাশরাফিও কিছুটা ইনজুরি আক্রান্ত। তার হ্যামস্ট্রিংয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে। তবে শ্রীলংকার বিপক্ষে তার খেলা নিয়ে সংশয় নেই। একটু সমস্যা থাকলেও মাশরাফি খেলবে।এর আগে এর চেয়েও বেশি চোট নিয়ে মাশরাফি মাঠে নেমেছে ও পারফর্ম করেছে।’

নিজের কথায় খালেদ মাহমুদ পরিষ্কার করে কিছু না বললেও হাব-ভাবে এটা বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, পায়ের ব্যাথা না কমলে সাকিবকে মাঠে নামানো হচ্ছে না।

সুজনের এমন বক্তব্যে আজ সাকিবের খেলা নিয়ে শংকা প্রকাশ করেছেন এই মুহূর্তে লন্ডনে অবস্থানরত বাংলাদেশের ক্রীড়া সাংবাদিকরা। যেহেতু সাকিব আজ প্র্যাকটিস করেননি এবং সেটা অবশ্যই যে বিশ্রামের জন্য নয় তা বেশ পরিষ্কার।

পায়ের ব্যাথার কারণেই আজ অনুশীলনে যোগ দেননি তিনি। এখন টিম ম্যানেজমেন্ট শুধু আজ রাতটার জন্য অপেক্ষা করছেন। বিশ্রামে থাকা সাকিবের পায়ের ব্যথা সকাল অবধি না কমলে বাংলাদেশের আকাশে জমা কালো মেঘ সরছে না।

কেননা এর আগের দুই ম্যচের মতো মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সাকিবই হতে পারেন দলের সবচেয়ে বড় অস্ত্র এবং তা ব্যাট-বল দুই ক্ষেত্রেই।

এদিকে মাশরাফি জানিয়েছেন, যে করেই হোক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় ছাড়া আর কিছুই ভাবছেন না তিনি। এ জয় দিয়ে সেমিফাইনালের পথ সুগম করতে চান তিনি।

তিন ম্যাচে ১ জয় ও ২ হারে বাংলাদেশের এখন সংগ্রহ ২ পয়েন্ট। এতে সেমিফাইনালে খেলাটা দিনদিন কঠিন সমীকরণে পরিণত হতে চলেছে।

তামিম, মাহমুদউল্লাহর অনুজ্জ্বলতার সময়ে ফর্মের চূড়ায় রয়েছেন সাকিব। তিন ম্যাচে ২৬০ রান করে এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের সর্বাধিক রান সংগ্রাহক তিনি।

তাই কাল ব্রিস্টলে সূর্য ওঠার পর সাকিব ফিট না থাকলে সে সংবাদ বাংলাদেশের জন্য প্রথম দুঃসংবাদই হবে।