বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা বেতন কাঠামোর আওতায় আসছে

প্রকাশিতঃ শনিবার, জুন ২৯, ২০১৯, ১:৪৮ অপরাহ্ণ

ঢাকা : দেশের প্রাথমিক স্তরের স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা স্থাপন, স্বীকৃতি, পরিচালনা, জনবল কাঠামো এবং বেতনভাতা, অনুদান সংক্রান্ত নীতিমালা ২০১৮ সালের ১৮ নভেম্বর জারি করেছে সরকার। সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে গত ৯ মে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিসংখ্যান তুলে ধরে এমপিওভুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সারাংশ পাঠান কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর (বর্তমানে নির্বাচন কমিশন সচিব)। ওই সারাংশ গত ১২ জুন অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী।

জানা গেছে, দেশের প্রায় চার হাজার ৩১২টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসাকে বেতন কাঠামোর আওতায় আনা হচ্ছে। এর মধ্যে নিবন্ধিত ও সরকারি অনুদান পাওয়া এক হাজার ৫১৯টি প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিতদের শিগগিরই বেতনভাতা দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এর আওতায় নেবে সরকার। বর্তমানে নিবন্ধিত ইবতেদায়ি প্রধান শিক্ষকরা দুই হাজার ৫০০ টাকা এবং সহকারী শিক্ষকরা দুই হাজার ৩০০ টাকা সরকারি অনুদান পাচ্ছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায় , ১৯৮৪ সালে মোট ১৮ হাজার ১৮৯টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার নিবন্ধন দেয় সরকার। এর মধ্যে ১৯৯৪ সালে এক হাজার ৫১৯টি মাদ্রাসার শিক্ষকদের ৫শ’ টাকা করে অনুদান দেওয়া শুরু হয়। একই সময় সমান অনুদান পাওয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো সরকারি করা হয়েছে। তবে মাত্র এক হাজার ৫১৯টি মাদ্রাসাকে এখনও সামান্য অনুদান দেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও উন্নয়ন) একেএম জাকির হোসেন ভুঞা বলেন, এ সংক্রান্ত প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের কাগজ হাতে পেলে তা অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। অর্থ মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলে প্রথমে এক হাজার ৫১৯টি প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে। পর্যায়ক্রমে অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোও এমপিওভুক্ত হবে।

একুশে/ডেস্ক/এসসি