বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬

লালখানবাজারে সংঘর্ষের মামলায় বেলালের ২৮ অনুসারী কারাগারে

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জুলাই ৪, ২০১৯, ৩:৫৭ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: নগরের লালখানবাজার এলাকায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা একটি মামলার ২৮ আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু ছালেম মোহাম্মদ নোমান জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

আসামিদের মধ্যে আরিফুল হানিফ, মো. তৈয়ব, মো. কাদের, সালাউদ্দিন, তাহের, শামীম, সবুজ মিয়াজী, মো. শাহীন, মো. সুমন, মো. শাহজাহান, আমজাদ হোসেন, মো. আলী, শওকত হোসেন, মোক্তার হোসেন, কাউছার, হোসেন সেলিম, শরিফ, মাসুদ রানা, ইমরান, দীন ইসলাম প্রমুখ রয়েছেন। তারা সবাই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মো. বেলালের অনুসারী।

আসামি পক্ষের আইনজীবী মো. মহিউদ্দিন এনাম বলেন, গত ১ জুলাই খুলশী থানায় দণ্ডবিধির ১৪৩, ৩২৩, ৩২৬, ৩০৭, ৩৪২, ৩৪৮, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় দায়ের হওয়া একটি মামলায় ৪১ জনকে আসামি করা হয়। এরমধ্যে ২৮ জন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। রাজনৈতিক কারণে উক্ত মামলায় আসামি করা হয়েছে এবং বেশ কয়েকজন আসামির বিরুদ্ধে এজাহারে কোনো অভিযোগ বর্ণনা করা হয়নি। এসব বিষয় তুলে ধরা হয় জামিন আবেদনের শুনানিতে। শুনানি শেষে আদালত জামিন নাকচ করে দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (প্রসিকিউশন) মো. কামরুজ্জামান বলেন, আদালতের আদেশের পর ২৮ আসামিকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ২৮ জুন রাতে ও ২৯ জুন বিকেলে লালখানবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মো. বেলালের অনুসারীদের মধ্যে দুদফা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের জন্য উভয় নেতা একে অপরকে দায়ী করেন। সংঘর্ষের ঘটনায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের হয়েছে খুলশী থানায়। এসব মামলায় দুই ডজনের বেশী আসামি ইতিমধ্যে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে।