বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬

হুয়াওয়ে প্রসঙ্গে ট্রাম্পকে সমর্থন মার্কিন প্রযুক্তি প্রধানদের

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯, ১২:০০ অপরাহ্ণ


ওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন প্রযুক্তি কোম্পানির প্রধান নির্বাহীরা সোমবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করেন এবং তারা চীনের টেলিকম জায়ান্ট কোম্পানি হুয়াওয়ের পণ্য ব্যবহার নিষিদ্ধকরণ নীতির প্রতি ‘জোরালো সমর্থন’ ব্যক্ত করেন। খবর এএফপি’র।

চীনের সরকার ও তাদের গোয়েন্দা সংস্থার সাথে সরাসরি কাজ করায় ওয়াশিংটন হুয়াওয়ে’কে অভিযুক্ত করে। তারা বলছে, এটা নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে। যদিও ওই কোম্পানির পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে আনীত যুক্তরাষ্ট্রের এমন অভিযোগের কথা প্রত্যাখান করা হয়েছে।

গত মে মাসে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কোন কোম্পানির সাথে হুয়াওয়ের বাণিজ্য কার্যকরভাবে নিষিদ্ধ করে একটি নির্বাহী আদেশ জারি করেন। এ সময় তিনি কোম্পানিটির বিভিন্ন কর্মকান্ডের সমালোচনাও করেন। যদিও এর স্বল্প সময় পর একটি সাময়িক লাইসেন্স দেয়া হয়।

ট্রাম্পের সঙ্গে ওই বৈঠকে গুগলের সুন্দর পিচাই, সিসকোর চাক রবিন্স, ইন্টেলের রবার্ট সোয়ান, মাইক্রোনের সঞ্জয় মেহরোত্রা, ওয়েস্টার্ন ডিজিটাল কর্পোরেশনের স্টিফেন মিলিগান, কুয়ালকমের স্টিভেন মোলেনকফ ও ব্রডকমের হক তান উপস্থিত ছিলেন।

হোয়াইট হাউস জানায়, ‘এসব প্রযুক্তি কোম্পানির প্রধান নির্বাহীরা জাতীয় নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে হুয়াওয়ের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের টেলিকম সামগ্রী বিক্রয় এবং তাদের নিকট থেকে কোন সামগ্রী ক্রয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ প্রেসিডেন্টের নীতিমালার প্রতি জোরালো সমর্থন ব্যক্ত করেন।’

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘তারা বাণিজ্য বিভাগ থেকে সময় মতো লাইসেন্স দেয়ার সিদ্ধান্তের অনুরোধ জানান এবং প্রেসিডেন্ট এতে সম্মত হন। গ্রুপটি ৫জি নেটওয়ার্ক প্রবর্তন করে তা বাস্তবায়নের ব্যাপারে অনেক আশাবাদী।

যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের নেটওয়ার্ক চালু করা থেকে হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হুয়াওয়ে হচ্ছে নতুন প্রজন্মের ৫জি বেতারবার্তা প্রযুক্তি চালুর একটি পথ প্রদর্শক কোম্পানি।