রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

চীনে টাইফুন লেকিমার আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৮

প্রকাশিতঃ রবিবার, আগস্ট ১১, ২০১৯, ৪:৪১ অপরাহ্ণ


বেইজিং: চীনের পূর্বাঞ্চলে টাইফুন লেকিমার আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে রোববার ২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। উদ্ধারকর্মীরা নিখোঁজদের সন্ধানে তল্লাশী চালিয়ে যাচ্ছে।
রোববার স্থানীয় কর্তৃপক্ষ একথা জানিয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

ঝড় ও এর কারণে সৃষ্ট ভূমিধসে দশ লাখেরও বেশি লোককে অন্যত্র সরানো হয়েছে।

রোববার ভোরে প্রচ- শক্তিশালী ঝড়টি ঘন্টায় ১৮৭ কিলোমিটার বেগে ওয়েনলিং নগরীতে আঘাত হানে। এ সময় সমুদ্রের ঢেউ কয়েক মিটার উঁচু হয়ে উপকূলে আঘাত হানে।

শনিবার চীনের জাতীয় টেলিভিশন কেন্দ্র সিসিটিভি জানায়, ওয়েনঝোউ মিউনিসিপালিটিতে ঝড়ের প্রভাবে সৃষ্ট ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে ভূমিধসে ১৮ জন প্রাণ হারিয়েছে। এলাকাটি সাংহাই থেকে প্রায় ৪শ’ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত।

রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানায়, টাইফুন আঘাত হানার আগে দশ লাখেরও বেশি লোককে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। প্রায় ১ লাখ ১০ হাজার লোক আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান করছে।

সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে শুধু ঝেজিয়াং প্রদেশেই প্রায় ৩শ’ ফ্লাইট বাতিল এবং ফেরি ও রেল সেবা স্থগিত করা হয়েছে।

মহান বিজয় দিবস ২০১৯ উপলক্ষে একুশে পত্রিকা কর্তৃক একটি বিশেষ সংখ্যা প্রকাশের উদ্যেগকে স্বাগত জানাই। বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের পক্ষ হতে উক্ত প্রকাশনার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে জানাই-

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা

একটি সুখী, সমৃদ্ধ, ক্ষুধা ও দারিদ্র স্বপ্নীল ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার এবং সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ প্রতিষ্টার প্রত্যয় নিয়ে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ নিজস্ব উন্নয়ন কর্মসূচি এবং ২৮ টি ন্যস্ত বিভাগের বিভাগীয় কার্যক্রমের সমন্বয় সাধনসহ নিম্নবর্ণিত কার্যদি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছেঃ

১) শিক্ষা
২) স্বাস্থ্য সেবা
৩) কৃষি
৪) মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ
৫) ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প
৬) যোগাযোগ
৭) পানীয় জল ও স্যানিটেশন
৮) সমবায় ও সমাজ সেবা কার্যক্রম
৯) ক্রীড়া ও সংস্কৃতি কর্মকান্ড
১০) স্থানীয় পর্যটন
১১) আইসিটি সেক্টর উন্নয়ন এবং
১২) মানব সম্পদ উন্নয়ন ইত্যাদি।

একটি উন্নত, সমৃদ্ধ, আধুনিক ও সম্প্রীতিত মডেল জেলা হিসেবে বান্দরবানকে গড়ে তোলাই হলো আমাদের দৃঢ় অঙ্গীকার-

ক্য শৈ হ্লা
চেয়ারম্যান
বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ
বান্দরবানান