রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

জাতির জনক হারানোর দিন স্মরণে চট্টগ্রাম ট্যুরিস্ট পুলিশ

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৫, ২০১৯, ৭:০১ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে চট্টগ্রাম ট্যুরিস্ট পুলিশ পালন করছে জাতির জনককে হারানোর দিনটি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের সামনে থেকে বের করা শোক র‌্যালীতে ট্যুরিস্ট পুলিশ চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মুসলিমের নেতৃত্বে ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা অংশ নিয়েছেন।

উক্ত র‌্যালী শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমীতে গিয়ে শেষ হয়। পরবর্তীতে ট্যুরিস্ট পুলিশ, চট্টগ্রাম বিভাগের পক্ষ থেকে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরবর্তীতে ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি কার্যালয়ের সভাকক্ষে শোক দিবসের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। ক্রমান্বয়ে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারবর্গের উপর শ্রদ্ধা নিবেদন করে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

বঙ্গবন্ধুর উপর নির্মিত হৃদয় বিদারক ডকুমেন্টারি প্রদর্শন এবং বঙ্গবন্ধুর উপর তথ্যবহুল আলোচনা করেন ট্যুরিস্ট পুলিশের চট্টগ্রাম জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম, বেড়ে উঠা এবং সংগ্রামী জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ের তথ্যবহুল মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ট্যুরিস্ট পুলিশ চট্টগ্রাম রিজিয়নের পুলিশ সুপার মো. আপেল মাহমুদ।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ট্যুরিস্ট পুলিশ চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মুসলিম। তিনি ১৫ আগস্টের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারবর্গের বিদেহী আত্মার প্রতি মাগফেরাত কামনা করেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ চট্টগ্রাম রিজিয়নের পুলিশ সুপার মো. আপেল মাহমুদের মোনাজাত পরিচালনার মাধ্যমে শোকের আবহে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভার সমাপ্তি হয়।

মহান বিজয় দিবস ২০১৯ উপলক্ষে একুশে পত্রিকা কর্তৃক একটি বিশেষ সংখ্যা প্রকাশের উদ্যেগকে স্বাগত জানাই। বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের পক্ষ হতে উক্ত প্রকাশনার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে জানাই-

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা

একটি সুখী, সমৃদ্ধ, ক্ষুধা ও দারিদ্র স্বপ্নীল ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার এবং সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ প্রতিষ্টার প্রত্যয় নিয়ে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ নিজস্ব উন্নয়ন কর্মসূচি এবং ২৮ টি ন্যস্ত বিভাগের বিভাগীয় কার্যক্রমের সমন্বয় সাধনসহ নিম্নবর্ণিত কার্যদি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছেঃ

১) শিক্ষা
২) স্বাস্থ্য সেবা
৩) কৃষি
৪) মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ
৫) ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প
৬) যোগাযোগ
৭) পানীয় জল ও স্যানিটেশন
৮) সমবায় ও সমাজ সেবা কার্যক্রম
৯) ক্রীড়া ও সংস্কৃতি কর্মকান্ড
১০) স্থানীয় পর্যটন
১১) আইসিটি সেক্টর উন্নয়ন এবং
১২) মানব সম্পদ উন্নয়ন ইত্যাদি।

একটি উন্নত, সমৃদ্ধ, আধুনিক ও সম্প্রীতিত মডেল জেলা হিসেবে বান্দরবানকে গড়ে তোলাই হলো আমাদের দৃঢ় অঙ্গীকার-

ক্য শৈ হ্লা
চেয়ারম্যান
বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ
বান্দরবানান