- একুশে পত্রিকা - http://www.ekusheypatrika.com -

চুমকির স্বপ্ন পূরণে বাধা নেই

চট্টগ্রাম: টাকার অভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তি হওয়া নিয়ে চুমকি চৌধুরীর অনিশ্চয়তা কেটে গেছে। আপাতত তাকে পড়াশোনার খরচ নিয়েও আর ভাবতে হবে না।

বুধবার চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা তাকে ঢাবিতে ভর্তি হতে ও অন্যান্য খরচের জন্য নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। এ সময় চুমকির মা তাপসী চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন।

পটিয়া পৌরসদরের তালতলা চৌকি এলাকার মেয়ে চুমকি চৌধুরী এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ’তে ভর্তির সুযোগ পায়। মেধাবী মেয়েটির স্বপ্ন চার্টার্ড অ্যাকাউনটেন্ট হওয়ার। বাবা সুবল চৌধুরী দিনমজুর, মা তাপসী চৌধুরী পেশায় গৃহিনী।

গৃহকর্মের পাশাপাশি মায়ের কাপড় সেলাই করে পাওয়া আয় দিয়েই চলে তাদের চারজনের সংসার। যেন নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা। শত অভাব পেছনে ঠেলে এ পর্যন্ত এসেছে মেয়েটি, স্কুল-কলেজের প্রতিটি পরীক্ষায় পেয়েছে জিপিএ-৫। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির চান্স পেয়েও অর্থাভাবে ভর্তি হতে না পারায় সৃষ্টি হয় তার স্বপ্নভঙ্গের শঙ্কা।

গত ৭ অক্টোবর “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়েও ভর্তি হতে পারছে না চুমকি” শিরোনামে দৈনিক কালেরকণ্ঠের “দ্বিতীয় রাজধানী” পাতায় প্রকাশিত হয় এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

চুমকির স্বপ্নপূরণে বাধা হয়ে দাঁড়ানো সেই অভাবের কথা জানতে পেরে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করেন প্রতিবেদক ও চুমকির পরিবারের সাথে।

অর্থের অভাবে যাতে চুমকির শিক্ষাজীবন থমকে না দাঁড়ায় সেজন্য সবসময় সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন এসপি নুরেআলম মিনা। সামনে এগিয়ে চলার ভরসা পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়েছে চুমকি ও তার পরিবার।