বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজেপির সভাপতি নাড্ডা

প্রকাশিতঃ সোমবার, জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১১:২৩ অপরাহ্ণ

 

ভারত : ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন জগৎপ্রকাশ নাড্ডা। সোমবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কোনো রকম প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছাড়াই সভাপতি হন তিনি। এর আগে গত এক বছর ধরে দলের কার্যকরী সভাপতির দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন তিনি।

সোমবার নয়াদিল্লিতে দলের সদর দফতরে সর্বসম্মতিক্রমে তার হাতে দলের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়। ২০১৯ থেকে ২০২২, আগামী তিন বছরের জন্য সভাপতির দায়িত্ব সামলাবেন নাড্ডা।

সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা থেকে সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়। বেলা সাড়ে ১০টা নাগাদ সেখানে মনোনয়নপত্র জমা দেন নড্ডা। অন্য কেউ ওই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করায়, ভোটাভুটি ছাড়াই দুপুর আড়াইটে নাগাদ দলের নতুন সভাপতি হিসাবে নাড্ডার নাম ঘোষণা করেন রাধামোহন সিংহ।

এর আগে দিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে সোমবার সকাল থেকে শুরু হয় সভাপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়া। এতে উপস্থিত ছিলেন অমিত শাহ, রাজনাথ সিংহ, নিতিন গডকড়ির মতো শীর্ষ নেতারা। তাদের উপস্থিতিতে সকাল ১০টা থেকে মনোনয়পত্র জমা নেওয়ার কাজ শুরু হয়। চলবে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। মনোনয়ন প্রত্যাখ্যান করার সময় দেয়া হয় মাত্র এক ঘণ্টা, স্থানীয় সময় দেড়টা থেকে আড়াইটা। কিন্তু কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় একমাত্র প্রার্থী নাড্ডাকে বিজেপি সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।

এত দিন দলের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন অমিত শাহ। কিন্তু গত বছর লোকসভা নির্বাচনে জিতে নরেন্দ্র মোদি দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসাবে তার সরকারে যোগ দেন অমিত শাহ। এক সঙ্গে দুই দায়িত্ব সামলানো সম্ভব নয় বলে গত বছর জুন মাসেই নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে জানিয়েছিলেন তিনি।

তখন থেকেই তার উত্তরসুরি হিসাবে নাড্ডার নাম উঠে আসছিল। তবে খাতা কলমে নড্ডা বিজেপির সভাপতি হলেও, দলের আসল নিয়ন্ত্রণ অমিত শাহের হাতেই থাকবে বলে মত সমালোচকদের। যদিও এই অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছে মোদির দল।

এর আগে ভারতের বাংলা পত্রিকা আনন্দবাজারের অনলাইন ভার্সনে বলা হয়েছিলো, বিজেপি সভাপতি হিসাবে দলের কার্যকরী সভাপতি জগৎপ্রকাশ নাড্ডার নাম একরকম পাকাই হয়ে গিয়েছে। তাই এ পদের জন্য অন্য কারো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সম্ভাবনা নেই। তাই ভোটাভুটি ছাড়াই ঘোষণা করা হতে পারে দলীয় প্রধানের নাম।

বিজেপি সূত্রে খবর, মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর্ব মিটে গেলে এ দিন সভাপতি হিসাবে নাড্ডার নাম প্রস্তাব করবেন অমিত শাহ, রাজনাথ সিংহ এবং নিতিন গডকড়ি। তাতে সমর্থন জানাবেন দলের জাতীয় পরিষদের সদস্যরা। নির্বাচন প্রক্রিয়া মিটে গেলে সদর দফতরে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন হওয়ার কথা। সেখানে নবনির্বাচিত সভাপতিকে অভিনন্দন জানাবেন অমিত শাহ, রাজনাথ সিংহরা। সেখানে বক্তৃতা করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে। পাশাপাশি বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও উপস্থিত থাকবেন সেখানে।

একুশে/এএ