বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬

সন্দ্বীপে একই পরিবারের তিনজনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০, ৮:১৬ অপরাহ্ণ

 

চট্টগ্রাম : সন্দ্বীপের মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ একই পরিবারের তিনজনকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশি যুবকের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০ টায় মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নে পূর্ব করুলার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহতরা হলেন মরিয়ম বেগম (৩০), তার স্বামী মো.সাইফুল (৩৬) ও সন্তান সাকিব (১৬) নামে তিনজন আহত হয়।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার বাড়ির উঠানে গাছের ঝড়ে পড়া পাতা কুড়ানোকে কেন্দ্র করে একই বাড়ির পাশাপাশি ঘরের হানিফের স্ত্রীর সাথে সাইফুলের ঝগড়া হয়। ঝগড়ার রেশ ধরে পরদিন শুক্রবার সকাল ১০টায় হানিফের ছেলে মো. ফারুক সাইফুলকে তার ঘরের সামনে মারধর করে। সাইফুলের স্ত্রী মরিয়ম স্বামীকে ছাড়িয়ে নিতে আসলে হানিফ ও তার ছেলে ফারুক ধারালো কোদাল দিয়ে সাইফুল ও মরিয়মের মাথা, ঘাড় ও পিঠে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে।

একই ঘটনায় সাইফুলের ছেলে সাকিব ও ফারুকের পিতা হানিফ আহত হয়। আহতরা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হানিফ ও সাইফুল মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের পূর্ব করুল্লার বাড়ির বাসিন্দা।

ইউপি সদস্য মো. রেজাউল করিম জানান, আরেক প্রতিবেশীর গাছের পাতা কুড়ানোকে কেন্দ্র করে সাইফুল ও হানিফের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঝগড়া বাধে। পরবর্তীতে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি হয়। আহতদের গুরুতর আহত অবস্থায় একটি স্থানীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে সন্দ্বীপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ শরীফুল আলম একুশে পত্রিকাকে বলেন, সকাল ১০টায় পূর্ব কলহের জের ধরে একটি হামলার ঘটনা শুনেছি। তবে আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে আমরা ব্যবস্থা নিবো।

একুশে/জেএইচ/এএ