বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে স্তম্ভিত মমতা

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৩০, ২০২০, ১:৩৬ অপরাহ্ণ


কলকাতা : ইরফান খানের মৃত্যু শোক এখনও কাটাতে পারেনি ভারত। এরই মধ্যে বজ্রাঘাতের মতো এল ঋষি কাপুরের প্রয়াণের খবরটা। আর এই খবর প্রকাশ পেতেই শোক জ্ঞাপন করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান তিনি স্তম্ভিত।

এক টুইট বার্তায় মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘আমি স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছি। আমি মর্মাহত ঋষি কাপুরের মৃত্যুর সংবাদে। একজন জাতীয় পুরস্কার জয়ী অভিনেতা, তিনি ১৫০-রও বেশি সিনেমায় কাজ করেছেন। বহু দিন ধরেই কঠিন রোগে ভুগছিলেন তিনি। শারীরিক অসুস্থতার বিরুদ্ধে তিনি লড়াই করেছেন। তাঁর পরিবারের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা। সিনেমা জগতের জন্য বড় ক্ষতি।’

গতকাল সকাল থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। এর আগে দীর্ঘ দুই বছর লড়াই করেছেন ক্যানসারের সঙ্গে। মাঝে সুস্থ হয়ে অভিনয়ে ফিরেও এসেছিলেন। মাঝে মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়তেন। আর এবার একেবারেই হেরে গেলেন তিনি। ৬৭ বছর বয়সেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন ঋষি কাপুর। টুইটারে তাঁর মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেন অমিতাভ বচ্চন।

২০১৮ সালে ক্যানসারে আক্রান্ত হন ঋষি। নিউ ইয়র্কে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। ২০১৯-এর সেপ্টেম্বরে সুস্থ হয়ে দেশে ফেরেন। কিন্তু, দেশে ফেরার পর থেকে একাধিকবার অসুস্থ হয়েছেন তিনি। এই বছরের শুরুর দিকে দিল্লিতে ছিলেন। ফেব্রুয়ারির শুরুতে অসুস্থ হওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বেশ কয়েকদিন চিকিৎসার পর হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। এরপরও চলতে থাকে দীর্ঘ লড়াই।

ছোটোবেলা থেকেই অভিনয় হাতেখড়ি ঋষি কাপুরের। ‘মেরা নাম জোকার’-এ অভিনয়ের জন্য বেস্ট চাইল্ড আর্টিস্টের পুরস্কার পেয়েছিলেন। তার তিন বছর পর ‘ববি’-তে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। এরপর একাধিক সিনেমায় দেখা গিয়েছে তাঁকে।