২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার

দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্টের ২৪ বছর জেল

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, এপ্রিল ৬, ২০১৮, ৫:২০ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দুর্নীতির দায়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম নারী নেত্রী ও ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন হাইকে ২৪ বছরের সাজা দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। ঘুষ গ্রহণ ও ক্ষমতার অব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়া শুক্রবার তাকে এ সাজা দেওয়া হলো।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম ইউয়্যেনহ্যাপ এ খবর জানায়।

শুক্রবার পার্কের এই রায় জনস্বার্থ বিবেচনা করে টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়, যা দেশটির ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা।

এরআগে জিউনের বিরুদ্ধে ১৮টি অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে অন্যতম হলো তার বান্ধবী চই সুন-সিলের সঙ্গে যোগসাজশ করে পার্ক স্যামসাং ও লোটের মত কোম্পানিকে অবৈধ সুবিধা দেওয়া। এর মাধ্যমে তিনি ৭৭ দশমিক ৪ বিলিয়ন ইউয়ান নেন। ওই অর্থে দুটি দাতব্য সংস্থা গড়ে ‍তোলেন বলে প্রমাণ হয়।

১৮টি অভিযোগের মধ্যে মাত্র দুটিতে নির্দোশ প্রমাণিত হন পার্ক জিউন হাই।

রায় ঘোষণার সময় পার্ক আদালতে উপস্থিত ছিলেন না। এক বছর ধরে তিনি কারাগারে বন্দি আছেন ।

পার্কের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর, ২০১৬ সালে পার্কের অভিশংসনের পক্ষে ভোট দেন দক্ষিণ কোরিয়ার আইনপ্রণেতারা। কিন্তু পার্ক তার বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন, এবং ক্ষমতা ছাড়বেন না বলে জানিয়ে দেন।
এর তিন মাস পর সাংবিধানিক আদালতের আট সদস্যই তার অভিশংসনের পক্ষে কথা বলেন। এর পরপরই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পার্ক দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট চাং-হির কন্যা। যিনি ১৯৬১ সালে জোর পূর্বক দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষমতা দখল করেছিলেন। ক্ষমতাগ্রহণের আট বছর পর আততায়ির হাতে নিহত হন পার্কের বাবা।