২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, শুক্রবার

চট্টগ্রামে পুলিশ বক্স ভাঙচুর, মোটর সাইকেলে আগুন দিল পরিবহন শ্রমিকরা

KSRM Advertisement
প্রকাশিতঃ বুধবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৮, ৫:৫১ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী-চৌমুহনী এলাকায় ট্রাফিক পুলিশ বক্সে ভাঙচুর ও পুলিশের একটি মোটর সাইকেলে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে পুলিশ ও পরিবহন শ্রমিকদের দুই পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাতরী-চৌমুহনী এলাকায় চৌরাস্তার মোড়ে একটি কর্ভাডভ্যানকে থামার সংকেত দেন ট্রাফিক পুলিশের এএসআই আনোয়ার। চালক রুবেল গাড়ি না থামানোয় ঘটনার সূত্রপাত। এক পর্যায়ে এএসআই আনোয়ার চালক রুবেলকে পুলিশ বক্সে নিয়ে আটকে রাখেন। এ ঘটনায় প্রায় এক ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন পরিবহন শ্রমিকরা।

এতে চট্টগ্রাম থেকে আনোয়ারা এবং বাঁশখালীমুখী সড়কে দীর্ঘ যানজটে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। বিক্ষোভের একপর্যায়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সে ভাঙচুর ও পুলিশের একজন এএসআইয়ের মোটর সাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভায়।

পরিবহন শ্রমিকদের অভিযোগ, চাতরী-চৌমুহনী এলাকায় ট্রাফিক পুলিশ বেপরোয়া চাঁদাবাজি করছে সাম্প্রতিক সময়ে। এ নিয়ে অতিষ্ট হয়ে উঠেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার গাড়ি থামানোর সংকেত দেওয়ার পর চালকের কাছ থেকে ট্রাফিক সদস্য চাঁদা দাবি করেন। এরপর গাড়ি চালিয়ে চলে যেতে চাইলে ঘটনার সূত্রপাত।

চাঁদা দাবির অভিযোগ অস্বীকার করে আনোয়ারা থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলেন, একটি কর্ভাডভ্যানকে থামার সংকেত দিলেও চালক রুবেল থামেনি। পরে ট্রাফিক পুলিশ গাড়িটি থামালে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পরিবহন শ্রমিক ও স্থানীয় কিছু যুবক পুলিশ বক্সে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। ঘটনাস্থলে যাওয়া একজন এটিএসআইর ব্যক্তিগত মোটর সাইকেল পুড়িয়ে দেয়। চালক রুবেলকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।