১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৫, শুক্রবার

ভিডিও কনফারেন্সে নির্বাচনি প্রচার চালাবেন শেখ হাসিনা

KSRM Advertisement
প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮, ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ

ফাইল ছবি


ডয়চে ভেলে: গোপালগগঞ্জ থেকে বুধবার আনুষ্ঠানিক নির্বাচনি প্রচার শুরু করলেও জেলায় জেলায় নৌকার পক্ষে নির্বাচনি প্রচারে যাচ্ছেন না শেখ হাসিনা৷ ধানমন্ডির সুধাসদনে স্টুডিও থেকে ভিডিও বনফারেন্সে নির্বাচনি প্রচার চালাবেন তিনি৷

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বুধবার গোপালগঞ্জে তাঁর নিজ নির্বাচনি আসনে জনসভার মাধ্যমে আওয়ামী লীগের আনুষ্ঠানিক নির্বাচনি প্রচার শুরু করেছেন৷ তিনি সড়কপথে গোপালগঞ্জ গিয়েছেন৷ বৃহস্পতিবার সড়ক পথেই ঢাকায় ফিরে আসবেন৷ ঢাকায় ফেরার পথে তাঁর সাতটি পথসভায় বক্তৃতা দেয়ার কথা রয়েছে৷ ফেরার পথে সর্বশেষ তিনি সাভারে পথসভায় বক্তৃতা দেবেন৷

আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানান, ‘‘প্রধানমন্ত্রী আজ (বুধবার) নিজ নির্বাচনি এলাকায় গেলেও জেলায় জেলায় তিনি নির্বাচনি প্রচারে যাবেন না৷ এমনকি সব বিভাগেও যাবেন না৷

সিলেট ও রংপুর বিভাগে যাবেন৷ তবে বিভিন্ন জেলায়, নির্বাচনি এলকা ও বিভাগে তিনি ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য রাখবেন৷ জেলাগুলোতে একাধিক জায়ান্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে তাঁর বক্তব্য প্রচার করা হবে৷ আর এজন্য সিডিউল তৈরি করা হচ্ছে৷”

তিনি বলেন, ‘‘এই কাজের জন্য ধানমন্ডিতে তাঁর নিজ বাড়ি সুধাসদনে স্টুডিও তৈরি করা হয়েছে৷ তিনি সেখান থেকেই বক্তব্য দেবেন৷”

অতীতের নির্বাচনগুলোতে শেখ হাসিনা জেলায় জেলায় সফর করেছেন৷ এবার কেন করবেন না জানতে চাইলে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘‘প্রথমত প্রধানমন্ত্রী কোনো সরকারি সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছেন না৷ নিরাপত্তা বলতে তিনি নিয়ম মাফিক যা পান, তাই৷ জেলায় জেলায় সফর করতে হলে তাঁকে ব্যক্তিগত গাড়ি, বিমান বা অন্যকোনো ভাড়ার যানবাহন ব্যবহার করতে হবে৷ এতে জনদুর্ভোগ সুষ্টি হতে পারে এবং সময়সাপেক্ষ৷ নির্বাচন কাছেই৷ সময় তত নেই৷”

তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘‘নিরাপত্তা ইস্যু তো আছেই৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের নেতাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি নিরাপত্তা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন৷ নিরাপত্তা ঝুঁকির বিষয়টি অবশ্যই বিবেচনায় রাখা হয়েছে৷”