১৭ জানুয়ারি ২০১৯, ৩ মাঘ ১৪২৫, বুধবার

“ইতিহাস থেকে বিচ্ছুরিত জাতি শেকড়বিহীন” : ইউজিসি চেয়ারম্যান

KSRM Advertisement
প্রকাশিতঃ রবিবার, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯, ৫:৫৬ অপরাহ্ণ

চবি প্রতিনিধি : আজকের প্রজন্ম ইতিহাস থেকে বিচ্ছুরিত। ইতিহাস থেকে বিচ্ছুরিত জাতি শেকড়বিহীন। পাঠ্যপস্তুক পাঠের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা উচিত দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং বাহিরের জগতের জ্ঞান অর্জন করা।

রবিবার (১৩ই জানুয়ারি) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ব্যাবসায় প্রশাসন অনুষদ প্রাঙ্গনে আয়োজিত সমন্বিত নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি)চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান।

আব্দুল মান্নান বলেন, “শিল্প-বাণিজ্যে উৎকর্ষ সাধন করে বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে পদার্পন করছে।গার্মেন্টস শিল্পে নতুন নতুন প্রযুক্তির ছোঁয়ায় আগের থেকে বেশি উন্নতি সাধন করছে”।

তিনি বলেন, “কৃষক,শ্রমিক ও এদেশের সাধারণ জনগণের টাকায় চলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। শিক্ষার্থীদের উচিত মাদক,দূর্ণীতি এবং জঙ্গিবাদ থেকে দূরে থেকে সঠিক শিক্ষা অর্জন করে দেশ ও জাতির সেবা করা”।

চবি ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এ. এফ. এম. আওরঙ্গজেবের সভাপতিত্বে এবং মার্কেটিং বিভাগের প্রফেসর মোহাম্মদ জাভেদ হোসেন ও সহযোগী অধ্যাপক দীপান্বিতা ভট্টাচার্য্যরে পরিচালনায় নবীন বরণ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী।

উপাচার্য নবীন শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন,”বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে নিরন্তন জ্ঞান আহরণের সর্বোচ্চ পাদপীঠ। এ মুক্ত পরিবেশে শিক্ষার্থীরা যে যত বেশি জ্ঞান আহরণে ব্রতী হবে, সে তত বেশি তার জ্ঞান ভান্ডারকে সমৃদ্ধ করার সুযোগ লাভ করবে”।

উক্ত নবীন বরণ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মুস্তাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী, প্রক্টর প্রফেসর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী, ছাত্র-ছাত্রী পরামর্শ ও নির্দেশনা কেন্দ্রের পরিচালক ও একাউন্টিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. আহমদ সালাউদ্দিন এবং প্রীতিলতা হলের প্রভোস্ট জনাব পারভীন সুলতানা। এ ছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চবি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মো. সাহিদুর রহমান, ফাইন্যান্স বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ শামীম উদ্দিন খান, মার্কেটিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর সজীব কুমার ঘোষ, ব্যাংকিং এন্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. সুলতান আহমেদ ও অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহবায়ক একাউন্টিং বিভাগের প্রফেসর ড. মো: আইয়ুব ইসলাম।

সকাল সাড়ে ১০টায় শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে ব্যাবসায় প্রশাসন অনুষদে বরণ করে নেওয়া হয়। এবং বেলা এক’টা পর্যন্ত আলোচনা সভার শেষে বিকেল এক মনমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অায়োজন করা হয়।

একুশে/আইসি/এসসি