২১ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, শনিবার

ডাকসু ভিপি নুর অবরূদ্ধ, ২ ঘণ্টা পর উদ্ধার

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২, ২০১৯, ৮:৪৪ অপরাহ্ণ

ঢাকা : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম (এসএম) হলের ভেতরে ডাকসুর ভিপি নুরসহ কয়েকজনকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে এসএম হলের শিক্ষার্থী ফরিদ হাসানকে মারধরের প্রতিবাদে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে হলটির প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহবুব জোয়ার্দারের কাছে অভিযোগপত্র দিতে গেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবরুদ্ধ করেন। পরে সন্ধ্যা সাতটার পরে প্রাধ্যক্ষের উপস্থিতিতে হল থেকে বের হন নুর।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানান, এসএম হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মো. ফরিদ হাসানকে সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে মারধর করে হল থেকে বের করে দেয় ছাত্রলীগ। এই ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে সোমবার (২ এপ্রিল) বিকাল ৪টায় টিএসসির রাজু সন্ত্রাসবিরোধী ভাস্কর্যের সামনে মানববন্ধন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ডাকসু ভিপি নুর। মানববন্ধন শেষে কয়েকজন শিক্ষার্থীকে সঙ্গে নিয়ে এই ঘটনার অভিযোগ জানাতে এসএম হলে প্রবেশ করেন তিনি। তখন নুরকে লক্ষ্য করে ডিম নিক্ষেপ করা হয়।

তবে নুর ও তার সঙ্গে থাকা শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, নুর এসএম হলে প্রবেশ করার পরপরই হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি তাহসান হোসেন রাসেল ও সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তাপসের নেতৃত্বে তাদের অবরুদ্ধ করা হয়। এসময় হল সংসদের অনুমতি না নিয়ে হলে প্রবেশ করায় নুরকে গালিগালাজ করেন হল সংসদের ভিপি কামাল হোসেন এবং জিএস জুলিয়াস সিজার। এক পর্যায়ে নুরকে ধাক্কা দেন কামাল। এছাড়াও ছাত্রলীগ কর্মীরা নুরের সঙ্গে থাকা একজনকে মারধর করেছে বলেও অভিযোগ তাদের।

তবে অভিযোগের ব্যাপারে এসএম হলের ভিপি কামাল বলেন, এসব মিথ্যা অভিযোগ। মাদক ব্যবসায়ীকে বাঁচানোর জন্য তিনি (নুর) হলে এলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ডিম নিক্ষেপ করেছে।

উর্দু বিভাগের মাস্টার্সে অধ্যয়নরত গুরুতর আহত ফরিদ বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেলে চিকিৎসাধীন। তার জখম হওয়া স্থানে ৩২টি সেলাই করা হয়েছে।

একুশে/ডেস্ক/এসসি