২১ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, শনিবার

হাটহাজারীতে অবৈধভাবে চলছে পুকুর ভরাট!

প্রকাশিতঃ সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০১৯, ৭:১৯ অপরাহ্ণ


হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের হাটহাজারী পৌর সদরে প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রকাশ্যে শত বছরের পুরোনো একটি পুকুর ভরাট করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আইন অমান্য করে এভাবে পুকুর ভরাটের ফলে পরিবেশ বির্পযয়সহ পানি সংকটের আশংকা করছে এলাকাবাসী। উপজেলা প্রশাসনের অদূরে এ পুকুরটি ভরাট করা হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিরবতায় এলাকাবাসীর মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা পরিষদ থেকে প্রায় দেড়শ গজ দূরে হাটহাজারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের উত্তর পাশের শত বছরের পুরনো বিশাল পুকুরটির এক পাশে মাটি ও বালি দিয়ে ভরাটের কাজ চলছে। সেখানে ইটের দেয়ালও দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা বলছেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় উক্ত এলাকার একমাত্র পুকুরটি হল শেষ ভরসা। তবে পুকুরটি ধীরে ধীরে ভরাট করে ফেলার কারণে পানি সংকট তৈরী হওয়া নিয়ে সংশয়ে আছেন তারা।

স্থানীয়রা বলেন, পুকুরটি শত বছরের পুরোনো। একটি চক্র এ পুকুরটির মালিকের আর্থিক অসচ্ছলতার সুযোগ নিয়ে বায়না করে পুকুরের একটি অংশ ভরাট করে এক প্রবাসীর কাছে চড়া দামে বিক্রি করে দেয়। ওই চক্রটি প্রভাবশালী হওয়ায় পরিবেশ আইন অমান্য করে পুকুর ভরাট চললেও নির্বিকার রয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পরিবেশ অধিদপ্তর।

অভিযুক্তরা এ বিষয়ে গণমাধ্যমের কাছে বক্তব্য দিতে রাজী হননি।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ রুহুল আমিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, পুকুর ভরাটের বিষয়গুলো দেখার দায়িত্ব পরিবেশ অধিদপ্তরের। আমরা কোন পদক্ষেপ নিতে গেলে দেখা যায় মালিককে খুঁজে পাওয়া যায় না, আইনী জটিলতা তৈরী হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক মুক্তাদির হাসান বলেন, পরিবেশ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী পুকুর ভরাট করতে হলে আমাদের থেকে অনুমতি নিতে হবে। অভিযোগ পেলে এ ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।