শনিবার, ৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭

২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবেন পুতিন

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জুলাই ২, ২০২০, ৩:০৭ অপরাহ্ণ


মস্কো : রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী ভোটে রাশিয়ানরা সাংবিধানিক পরিবর্তনের একটি প্যাকেজ অনুমোদন দিয়েছেন।

বুধবার নাগাদ আংশিক ফলাফলে দেখা যায়, সাংবিধানিক পরিবর্তনের পক্ষে ভোটারদেও বিপুল সমর্থনের কারণে ভ্লাদিমির পুতিনের দুই দশকের শাসন ২০৩৬ সাল পর্যন্ত সম্প্রসারিত হচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনের ফলাফল তুলে ধরে রাশিয়ার রাষ্ট্রীর এজেন্সিগুলো জানায়, সাতদিনব্যাপী ভোট গ্রহন শেষ হওয়ার পরে ৮৫ শতাংশ ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে। এতে ৭৭.৮ শতাংশ ভোটার সাংবিধানিক পরিবর্তনের পক্ষে ভোট দিয়েছে।

আজীবন ক্রেমলিনের ক্ষমতায় থাকার ব্যাপারে চলতি বছরের প্রথমদিকে পুতিনের ঘোষণার নিন্দা ও সমালোচনার কারণে এই সাংবিধানিক পরিবর্তনে সমর্থনের ব্যাপারে ভোটারদের মধ্যে সন্দেহ দেখা দেয়।

এদিকে ক্রেমলিনের কড়া সমালোচক আলেক্সেই নাভালনি এই ফলাফলের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এটি ‘চরম মিথ্যা’ এবং এতে জনগণের মতামতের প্রকৃত প্রতিফলন ঘটেনি।

সংবিধান সংশোধনের বিল কয়েক সপ্তাহ আগে রাশিয়ান পার্লামেন্টে পাস হয়েছে এবং নতুন সংবিধানের কপি ইতোমধ্যেই বুকসপে বিক্রি হচ্ছে। তবে পুতিন বলেছেন, নতুন সংবিধানের বৈধতাদানের জন্য ভোটারদের সম্মতি জরুরি।

সংশোধনীতে রক্ষণশীল ও জনগণের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির পদক্ষেপ রয়েছে। এরমধ্যে আরো রয়েছে জনগণের জন্য সর্বোচ্চ পেনশন সুবিধা এবং গে ম্যারেজ বন্ধের কার্যকর ব্যবস্থা। পুতিন চলতি মেয়াদে ২০২৪ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট থাকবেন, তবে এরপরেও সংশোধনীতে মেয়াদ আরো দুইদফা বাড়ানো পুতিনের জন্য ছিল একটি জরুরি পদক্ষেপ।