মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

করোনা পরীক্ষার ফি নির্ধারণ ‘অমানবিক’ : চট্টগ্রাম ক্যাব

প্রকাশিতঃ শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০, ৬:৪৯ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম : করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার ফি নির্ধারণ ‘অমানবিক’ উল্লেখ করে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম। শনিবার (৪ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি জানানো হয়।

এতে স্বাক্ষর করেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগরের সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম, ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আবদুল মান্নান, ক্যাব যুব গ্রুপের সভাপতি চৌধুরী কে এনএম রিয়াদ ও সম্পাদক নিপা দাস।

ক্যাবের বিবৃতিতে বলা হয়, নানা সংকটের মধ্য দিয়ে দেশে করোনা চিকিৎসা চলছে। আর যেখানে টেস্ট করাতে ও ফলাফল পেতে মানুষের ভোগান্তির শেষ নেই সেখানে এই অব্যবস্থাপনা দূর না করে হঠাৎ করে করোনা পরীক্ষায় ফি নির্ধারণ করেছে সরকার। বিষয়টি দেশের সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক। কারণ সংবিধানের ১৭নং অনুচ্ছেদ এ রাষ্ট্রের নাগরিকদের চিকিৎসা ও মহামারীকালে যাবতীয় সুবিধা রাষ্ট্র নিশ্চিত করার কথা বলা আছে।

বিবৃতিতে ক্যাব নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা মহামারীর কঠিন দুর্যোগে মানুষকে কর্মহীন, আয় রোজগার হারিয়ে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। সেখানে টেস্টের পরীক্ষার ফি সাধারণ রোগীদের জন্য “মরার উপর খাড়ার ঘা” হিসাবে আর্বিভুত হয়েছে। এই ফি নির্ধারণ শুধু অমানবিক নয়, অগ্রহণযোগ্য ও কল্যাণকামী রাষ্ট্রের কাছে আশা করা যায় না।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, সরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, বিভিন্ন পেশাজীবিদের জন্য পৃথক চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করা হলেও সাধারণ রোগীদের ভাগ্য সেই জরাজীর্ণ সরকারি হাসপাতাল ছাড়া কিছুই নাই। সেখানে আবার ভিআইপি, ভিভিআইপি নামে সব সুবিধাগুলি উপরতলার মানুষরা দখল করছে। চিকিৎসা সর্বজনীন না হলে এ অবস্থার পরিত্রাণ নেই।