মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে পানি সমস্যার সমাধানে সরকার ব্যর্থ : ফখরুল

প্রকাশিতঃ সোমবার, জুলাই ২৭, ২০২০, ৬:১৯ অপরাহ্ণ


ঢাকা : বিএনপি আভিযোগ করেছে, ক্ষমতাসীনদের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে ভারতের সাথে পানি সমস্যার সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার। যার ফলে বাংলাদেশের নদী অববাহিকায় বসবাসকারী মানুষেরা প্রায় প্রতিবছর একাধিকবার বন্যায় আক্রান্ত হয়ে সর্বস্বান্ত হয়ে যাচ্ছে। আজ (সোমবার) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এমন অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ভারত অভিন্ন নদীগুলোর সকল বাঁধ এবং ব্যারেজের গেট খুলে দেওয়ায় উজান থেকে নেমে আসা বন্যার পানিতে বাংলাদেশে ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, মেঘনা, মহানন্দা, পদ্মা, তিস্তা ও ধরলা নদীর অববাহিকায় ৩৪টি জেলা ইতিমধ্যেই প্লাবিত হয়েছে। কয়েকটি জেলায় এক মাসের মধ্যে ২-৩ বার বন্যা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ভারতের সঙ্গে অভিন্ন নদী প্রায় ১৫৪টি। একমাত্র পদ্মার ফারাক্কা বাঁধ ব্যতীত এগুলোর কোনোটারই কোনো পানিবণ্টন চুক্তি সম্পন্ন হয় নি ভারতের অনীহার কারণে । ভারত-বাংলাদেশ যৌথ নদী কমিশন প্রায় নিষ্ক্রিয় হয়ে আছে।

তিনি উল্লেখ করেন, তিস্তা চুক্তির বিষয়ে এই সরকার অনেক আশার বাণী শোনালেও গত এক দশকে ভারতের সাথে কোনো চুক্তিই করতে সক্ষম হয় নি অথচ তারা ভারতের সাথে একের পর এক ট্রানজিট, বন্দর ব্যবহার, বিদ্যুৎ ক্রয়সহ অসংখ্য অসমচুক্তি স্বাক্ষর করেছে। অন্যদিকে সীমান্তে প্রায় প্রতিদিন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বাংলাদেশীদের গুলি করে হত্যা করছে। সে ব্যাপারেও সরকার কোনো কার্যকর প্রতিবাদ জানাতে সাহস পায় নি।

এ সময় মির্জা ফখরুল আরো বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকারের ব্যর্থতা, চরম উদাসীনতা, অবহেলা ও দুর্নীতির কারণে যেমন গোটা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। ঠিক তেমনি বন্যার বিষয়েও তাদের নির্লিপ্ততা এবং নিষ্ক্রিয়তা জনগণকে আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলেছে।