বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭

করোনার তথ্য গোপন করছে ইরান!

প্রকাশিতঃ সোমবার, আগস্ট ৩, ২০২০, ৬:১৭ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত প্রথম ১২ টি দেশের একটি ইরান। সেদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ি সেখানে সর্বশেষ মারা গেছে ১৭ হাজার ৪০৫ জন, আক্রান্ত ৩ লাখ ১২ হাজার ৩৫ জন। তবে বিবিসি পারসিয়ান সার্ভিসের দাবী, সরকারিভাবে দেশটি যে সংখ্যা দেখাচ্ছে সে তুলনায় করোনায় মৃত্যু আর আক্রান্তের সংখ্যা তিনগুণ বেশি।

বিবিসি পারসিয়ান শাখা জানায়, সরকারি উপাত্তে ইরানে গত ২০ জুলাই পর্যন্ত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ৪০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অথচ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনে ১৪ হাজার ৪০৫ জন মৃত্যুর তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। এদিকে আক্রান্তের সংখ্যাও সরকারি হিসাবের দ্বিগুণ হবে বলে দাবী বিবিসির। তেহরানের হিসাবে, ২৫ জুলাই পর্যন্ত দুই লাখ ৭৮ হাজার ৮২৭ মানুষ মহামারীতে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু বিবিসির অনুসন্ধান বলছে, এই সংখ্যা চার লাখ ৫১ হাজার ২৪ জন।

এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের সংখ্যা হিসেব করলেও মধ্যপ্রাচ্যে করোনা পরিস্থিতিতে ইরানের অবস্থায় সবচেয়ে বেশি নাজুক। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে, সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিতীয় পর্যায়ের ধাক্কা সামাল দিচ্ছে বলে দাবী করেছে তারা।

এদিকে একটি অজ্ঞাত সূত্রের পাঠানো নথি অনুসারে বিবিসি পারসিয়ান এই প্রতিবেদন তৈরি করায় তা নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা জল্পনা। নথি অনুযায়ী, ইরানে কোভিড-১৯ এ প্রথম মৃত্যু রেকর্ড করা হয় ২২ জানুয়ারি। অথচ শিয়া সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটি তাদের ভূখণ্ডের ভেতর প্রথম রোগী শনাক্তের কথা প্রকাশ করেছিল এই ঘটনারও একমাস পর।

দেশটিতে প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকেই আক্রান্ত ও মৃত্যুর সরকারি হিসাব নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে আসছিলেন বিশ্বের অনেক সংস্থা। তবে এক পক্ষ দাবী করেছে, ব্যাপকহারে কোভিড টেস্ট করতে না পারার কারণে বিশ্বের প্রায় সব দেশেই আক্রান্ত-মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা সরকারি হিসাবের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি হবে।

তবে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা নথিগুলো থেকে স্পষ্ট হয়ে ইরান ইচ্ছাকৃতভাবে তাদের মৃত্যুর সংখ্যা ধামাচাপা দিয়েছে বলে বিবিসির দাবি।