মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭

বৈরুতে নিহত বেড়ে শতাধিক, তিনদিনের শোক, সাংসদের পদত্যাগ

প্রকাশিতঃ বুধবার, আগস্ট ৫, ২০২০, ২:৩৮ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : লেবাননের বৈরুত বন্দরে বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে শতাধিক হয়েছে। আহত চার হাজারেরও বেশি মানুষ। তবে ধ্বংসস্তুপ থেকে আরো হতাহত পাওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছে লেবাননের সরকারি কর্মকর্তারা। এদিকে বিস্ফোরণে সরকারের নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে সংসদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির সাংসদ মারওয়ান হামাদে।

আল-আরাবিয়াহর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, একটি অকার্যকর সরকারের অংশ হিসেবে নিজেকে নিয়ে সম্মানিত বোধ না করায় সাংসদ হামাদে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি বলেন, “আজ রাতে দলের প্রতিনিধি সভা থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানাব। একটি অকার্যকর প্রেসিডেন্ট ও সরকারের অধীন বিশ্বের সামনে লেবানন বিপর্যস্ত ও নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। ”

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় শোকাহত পুরো লেবাননে বুধবার থেকে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে। আল জাজিরা জানিয়েছে, এ ঘটনায় মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন। এতে দু’সপ্তাহব্যাপী জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেওয়া হতে পারে।এছাড়া পরিস্থিতি সামলাতে সরকার জরুরি ভিত্তিতে সরকার ৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার ছাড় করতে যাচ্ছে বলেও জানায় আল জাজিরা।

লেবাননের কর্মকর্তারা বলছেন, বিস্ফোরণস্থলের ধ্বংসস্তূপ সরাতে এখনও কাজ করছেন উদ্ধারকর্মীরা। ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। লেবানন রেডক্রসের প্রধান জর্জ কেটানি বলেন, আমরা একটি মারাত্মক বিপর্যয়ের প্রত্যক্ষদর্শী হলাম। বৈরুতের সবখানেই এখন আহত আর ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকাল ৬টার পর পর ওই বিস্ফোরণে বৈরুত ছাড়াও আশপাশের অনেক
শহর কেঁপে ওঠে। কম্পন অনুভূত হয় ২৪০ কিলোমিটার দূরের দ্বীপরাষ্ট্র সাইপ্রাসেও, সেখানকার বাসিন্দারা এ ঘটনাকে ভূমিকম্প বলে মনে করেছিলেন।