মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭

হাওরে ঘুরতে গিয়ে লাশ হলেন ১৭ জন, ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ ৯ জেলে

প্রকাশিতঃ বুধবার, আগস্ট ৫, ২০২০, ৬:২০ অপরাহ্ণ


ঢাকা : নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলায় পর্যটনকেন্দ্র উচিতপুরের হাওরে ঘুরতে এসে নৌকাডুবিতে অন্তত ১৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ইতোমধ্যে ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। একজন নিখোঁজ রয়েছেন। আজ বুধবার উচিতপুরের সামনে হাওর গোবিন্দশ্রী রাজালীকান্দা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে ময়মনসিংহ সদর থানার চরশিরতা ইউনিয়ন ও আটপাড়া তেলিগাতী থেকে ৪৮ জন ভ্রমণকারী তরুণ-তরুণী উচিতপুর হাওড়ে নৌভ্রমনে আসেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হাওরের উত্তাল ঢেউয়ে গোবিন্দশ্রী রাজালীকান্দা নামক স্থানে নৌকাটি ডুবে যায়।

দুর্ঘটনার বিষয়ে নিশ্চিত করে ওসি রমিজুল হক আজ সন্ধ্যায় জানিয়েছেন, তখনো উদ্ধারকাজ চলছিল।

ওদিকে, ভোলার মনপুরার মেঘনায় ইলিশ শিকারের সময় প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে মাছ ধরার ট্রলারডুবিতে ৯ জেলে নিখোঁজ হয়েছেন।

বুধবার বেলা ১২টায় উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ তালতলা মৎস্যঘাট সংলগ্ন মেঘনায় এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ জেলেরা হলেন শাহিন, মিজান, ইয়াছিন, মনির, ফারুক, জামাল, রিয়াজ, সবুজ ও গিয়াস উদ্দিন সুকানি। এদের সবার বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

ডুবে যাওয়া ট্রলারের আড়তদার ছাত্তার বেপারি জানান, মেঘনায় ইলিশ শিকারের সময় প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে ট্রলারের নিচের তলা ফেটে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারসহ জেলেদের উদ্ধারে কামাল ও স্বপন মাঝির দুটি ট্রলার মেঘনায় ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অলিউল্লাহ কাজল জানান, ছাত্তার বেপারির আড়তের গিয়াস উদ্দিন সুকানির ট্রলার ডুবে যায়। ট্রলারে থাকা জেলেদের উদ্ধারে স্থানীয়ভাবে উদ্যোগে নেয়া হয়েছে।