শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭

ভারতে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০, ৭:২০ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সংক্রমণের সংখ্যা দ্রুত বাড়লেও সক্রিয় করোনা রোগী ও মৃত্যু হার কমেছে। আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৩ হাজার ৬০১ জন নতুনভাবে সংক্রমিত হয়েছেন। একইসময়ে ৮৭১ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ওই তথ্য জানিয়েছে।

দেশে এ পর্যন্ত মোট ২২ লাখ ৬৮ হাজার ৬৭৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা হল ৬ লাখ ৩৯ হাজার ৯২৯ জন যাদের চিকিৎসা চলছে। অন্যদিকে, ১৫ লাখ ৮৩ হাজার ৪৮৯ রোগী সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন। যদিও দেশে এপর্যন্ত মোট ৪৫ হাজার ২৫৭ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন।

ভারতে একদিকে সংক্রমণের সংখ্যা যেমন বাড়ছে তেমনই করোনা মুক্ত হওয়ার সংখ্যাও বাড়ছে। করোনায় মৃত্যু হারও কমে এসেছে। দেশে বর্তমানে সুস্থতার হার ৬৯.৭৯ শতাংশ, সক্রিয় রোগীর হার ২৮.২১ শতাংশ এবং মৃত্যু হার কমে ১.৯৯ শতাংশ হয়েছে।

গত ৩১ মে সুস্থতার হার ছিল ৪৭.৭৫ শতাংশ। ১৫ জুন তা বেড়ে হয় ৫১.০৭ শতাংশ। ১ জুলাই সুস্থতার হার ছিল ৫৯.৪৩ শতাংশ। ২০ জুলাই তা আরও বৃদ্ধি পেয়ে ৬২.৬১ শতাংশে পৌঁছয়। আজ ১১ আগস্ট পর্যন্ত সুস্থতার হার ৬৯.৭৯ শতাংশ হয়েছে।

এছাড়া গত ৫ এপ্রিল ভারতে সক্রিয় করোনা রোগীর হার ছিল ৮৯. শতাংশ। আজ ১১ আগস্ট পর্যন্ত সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮.২১ শতাংশ। ভারত অবশ্য প্রতি দশ লাখ জনসংখ্যায় করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে বড় দেশগুলোর তুলনায় অপেক্ষাকৃতভাবে কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে। ভারতে দশ লাখ জনসংখ্যায় করোনা পরীক্ষার গড় ১৭ হাজার ৭৯৫।

কিন্তু ব্রিটেনে প্রতি দশ লাখ জনসংখ্যায় ২.৭ লাখ লোকের পরীক্ষা হয়েছে। একই সংখ্যার ভিত্তিতে আমেরিকা ১ লাখ ৯৯ হাজার ৮০৩ জন এবং রাশিয়ায় এই সংখ্যা ২ লাখ ১১ হাজার ৪৩ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। গণমাধ্যমে প্রকাশ, করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে ইরান, সৌদি আরব, কলম্বিয়া এবং তুরস্ক ভারতের থেকে এগিয়ে রয়েছে। ভারতের থেকে পিছিয়ে রয়েছে কেবল পাকিস্তান, মেক্সিকো ও বাংলাদেশ।