বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭

ভারতের নতুন সংসদ ভবন নির্মাণ করবে টাটা গ্রুপ, ব্যয় ৮৬২ কোটি রুপি

প্রকাশিতঃ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০, ২:১৭ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দিল্লিতে ঔপনিবেশিক আমলের স্থাপনাগুলো আধুনিক করার লক্ষ্যে ভারত সরকার তাদের সংসদ ভবন নতুন করে নির্মাণ করবে। টাটা গ্রুপের তত্ত্বাবধানে নির্মিত হতে যাওয়া নতুন এই ভবন হবে ত্রিকোণাকৃতির। তিন তলাবিশিষ্ট নতুন ভবনে এক হাজার ৪০০ এমপি একসঙ্গে বসতে পারবেন বলে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

সংবাদ মাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে নতুন পার্লামেন্ট ভবন তৈরির দায়িত্ব পেয়েছে টাটা গ্রুপ। ৮৬২ কোটি রুপি ব্যয়ে এটি তৈরি করা হবে যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৯৯২ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। টাটার সাথে ভারত সরকারের প্রাথমিক সব প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। ওয়ার্ক অর্ডার পাওয়ার ২০-২১ মাসের মধ্যে তাদের কাজ শেষ করার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বেঁধে দিয়েছেন। তিনি আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ২৬ জানুয়ারি ভারতের ৭৫তম প্রজাতন্ত্র দিবসে নতুন পার্লামেন্ট ভবনে অধিবেশন আয়োজন করতে চান তিনি।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, নতুন এই সংসদ ভবনের জন্য সর্বোচ্চ বাজেট ছিল ৯৮০ কোটি রুপি। তবে এরও কমে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে নতুন পার্লামেন্ট ভবন তৈরির দায়িত্ব পেয়েছে টাটা গ্রুপ।

নতুন পার্লামেন্ট ভবনের সঙ্গে প্রশাসনের শীর্ষ স্তর তথা নর্থ ব্লক ও সাউথ ব্লককেও যুক্ত করতে চায় সরকার। এছাড়া নতুন প্রধানমন্ত্রী হাউস ও সেন্ট্রাল ভিস্তা তৈরি করা হচ্ছে। রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ইন্ডিয়া গেট- তিন কিলোমিটারজুড়ে হবে সেন্ট্রাল ভিস্টা। সেখানে কেন্দ্রীয় সব মন্ত্রণালয়কে একীভূত করা হবে। এর কাজ শেষ হবে ২০২৪ সালের মধ্যে।

হিন্দুস্তান টাইমসের তথ্যমতে, পুরনো পার্লামেন্ট বা লোকসভা ভবনটি ১২ একর জায়গার ওপর নির্মিত। ব্রিটিশ আমলে তৈরি এই পার্লামেন্ট ভবন ভারতের বহু ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী। নতুন ত্রিকোণাকৃতির যে লোকসভা ভবন তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, সেটি তৈরি হবে পুরনো ভবনেরই পাশে ১৩ একর জায়গায়।

বর্তমানে যে পার্লামেন্ট ভবন আছে এটি ৫৪৫ সদস্যকে কেন্দ্র করে তৈরি। কিন্তু ভারত চাচ্ছে তাদের এমপি সংখ্যা বাড়াতে। লোক সংখ্যার অনুপাতে পার্লামেন্টের সদস্যও বাড়ানো দরকার হয়ে পড়েছে। সে হিসেব করেই নতুন সদস্যদের স্থান সংকুলান করতেই নতুন ভবনের প্রয়োজন ভারত সরকারের।