বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭

প্যারিসে শিক্ষককে জবাই করে হত্যা, হামলাকারী নিহত

প্রকাশিতঃ শনিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২০, ১২:১৬ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফ্রান্সের রাজধানি প্যারিসে এক শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনাকে ‘ইসলামি সন্ত্রাসী হামলা’ হিসেবে অ্যাখা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রঁন। পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার বিকেল ৫ টায় উত্তর-পশ্চিম প্যারিসের এরাগনিতে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার কিছুক্ষণ পর পুলিশের গুলিতে নিহত হয় হামলাকারী।

বিবিসি জানিয়েছে, এই ঘটনায় তদন্ত করছে সন্ত্রাস বিরোধী পুলিশ বিভাগ। তবে পুলিশের মতে, নিহত শিক্ষক তার ছাত্রদের ইসলামের মহানবী সম্পর্কে বিতর্কিত একটি কার্টুন দেখিয়েছিলেন। সেই সূত্রেই এই হত্যাকান্ড হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে তারা।

জানা গেছে, ঘটনার পরপরই ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রঁ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ম্যাক্রঁন বলেছেন, “ঐ শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছে কারণ তিনি ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতা’র শিক্ষা দিচ্ছিলেন। ”

এক পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম জানিয়েছে, হামলাকারী হাতে একটি ছুরি এনং এয়ারসফট গান ছিল। যেখানে ওই শিক্ষককে খুন করা হয়েছে, তার ৬০০ মিটার দূরেই সন্দেহভাজন ওই হত্যাকারী পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। নিহত ব্যক্তির নাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

হামলার ঘটনার পরপরই হামলাকারীকে গ্রেফতার করার চেষ্টা করার সময় পুলিশের গুলিতে মারা যায়। হামলাকারী সম্পর্কেও বিস্তারিত তথ্য জানায়নি পুলিশ।

তিন সপ্তাহ আগে ফরাসী ব্যাঙ্গ রসাত্মক ম্যাগাজিন শার্লি হেবদোর পুরনো অফিসের সামনে দুই ব্যক্তির ওপর হামলা চালিয়ে আহত করার ঘটনা ঘটে। ২০১৫ সালে শার্লি হেবদোর ঐ অফিসে ইসলামপন্থী জঙ্গিদের হামলায় অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছিল।