শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭

মোদির ওয়েবসাইট থেকে সাড়ে ৫ লাখের বেশি মানুষের তথ্য চুরি

প্রকাশিতঃ শনিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২০, ৮:৫৮ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিজস্ব ওয়েবসাইট narendramodi.in থেকে সাড়ে পাঁচ লাখের বেশি মানুষের তথ্য চুরি হয়েছে। মার্কিন সাইবার সুরক্ষা সংস্থা ‘সাইবেল’ থেকে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, সাইবেলের দাবি যে ১০ অক্টোবর থেকে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট Narendramodi.in এর ডাটাবেস ডার্ক ওয়েবে পাওয়া যাচ্ছে। গেল শুক্রবার এক ব্লগ পোস্টে ‘সাইবেল’ দাবি করে, চুরি যাওয়া ৫ লাখ ৭০ হাজারেরও বেশি ব্যক্তিগত তথ্য কোনও অপরাধমূলক উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।

তথ্য ফাঁস বিশ্লেষণ করার পর সাইবেল ৫ লাখ ৭৪ হাজার ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগতভাবে শনাক্তযোগ্য তথ্য খুঁজে পেয়েছে, যাদের মধ্যে ২ লাখ ৯২ হাজার জন এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনুদান প্রদান করেছে।

চুরি হওয়া তথ্যের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর নানা তহবিলে অনুদান এসব মানুষের ফোন নম্বর, ইমেল আইডির মতো নানা ব্যক্তিগত তথ্য। এই সব তথ্য ডার্ক ওয়েবে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে বলে ওই সংস্থার দাবি।
এ ব্যাপারে ইন্ডিয়ান কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম (সিইআরটি-ইন) তাৎক্ষণিকভাবে কোন মন্তব্য করেনি। এছাড়া ডার্ক ওয়েবে ফাঁস হওয়ার বিষয়টি নিয়ে কোন সরকারী বিবৃতিও দেয়া হয়নি।

এনডিটিভি জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটের টুইটার একাউন্ট হ্যাক হওয়ার ঠিক এক মাস পরে এই সাম্প্রতিক ঘটনাটি ঘটেছে। ওই মার্কিন সংস্থা আরও জানিয়েছে, সাইবার অপরাধীরা সম্প্রতি ওই ওয়েবসাইটের তথ্য চুরি করে। সেটির সাহায্যেই তারা ওই ওয়েবসাইটের টুইটার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করেছিল।