২৬ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, মঙ্গলবার

চট্টগ্রাম অঞ্চলে জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্বে মুছা : পুলিশ সুপার

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, মার্চ ১৪, ২০১৭, ৪:১৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম: মুছা নামের এক ব্যক্তি চট্টগ্রাম অঞ্চলে জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন বলে জানিে ছেন চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ তথ্য জানান তিনি।

পুলিশ সুপার বলেন, মুছা নামের একজন সংগঠক জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালনার জন্য চট্টগ্রাম রেঞ্জের দায়িত্ব পেয়েছেন। তার গতিবিধি আমরা ফলো করছি। কিন্তু এতো দ্রুত সে অবস্থান বদল করে আমরা আমাদের নেটের মধ্যে তাকে আনতে পারছি না। তবে পুলিশের যতগুলো ইউনিট আছে সবাই এটা নিয়ে কাজ করছি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে আইএস আছে বলাটা আন্তর্জাতিক রাজনীতির অংশ। আসলে আমাদের দেশে কোনো আইএস নেই। এখানে মধ্যেপ্রাচ্যের আইএস আসেনি। যদি আইএস থাকেও তাহলে এরা আমাদেরই লোক। মূল আইএস’র সঙ্গে ওদের কানেকশান থাকতে পারে। আইএস কিন্তু আমদানি হয়নি, যারা করছে তারা লোকাল আইএস।

তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামে হঠাৎ করে জঙ্গি তৎপরতা বেড়ে গেল। আমরা এর কারণ তদন্ত করে দেখছি, মিরসরাইয়ে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় ইকোনমিক জোন হচ্ছে। পাশাপাশি চট্টগ্রামে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডে প্রচুর বিদেশি কাজ করছেন। বিদেশিরা যাতে এই দেশে আসতে ভয় পায়-কাজ না করে চলে যায় সেই ভয় লাগাতেই জঙ্গিরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তবে চট্টগ্রামের মাটির উপরও সৃষ্টিকর্তার একটা রহমত আছে। আমরা যখনই অ্যাকশান নিতে যাই তখনই তারা ধরা পড়ে যায়।

চেয়ারম্যান, মেম্বার ও পৌর কাউন্সিলরা ইয়াবা ব্যবসায় যুক্ত হচ্ছেন জানিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, ‘অতি সম্প্রতি ইয়াবার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটা তালিকা পেয়েছি। এতে ইয়াবা নিয়ে চার-পাঁচ ধরণের তালিকা আছে। যেমন-কারা ইয়াবা ব্যবসা করছে, কারা গ্রহণ করছে, কারা বহন করছে, কারা পৃষ্ঠপোষকতা করছে তাদের নাম রয়েছে। চট্টগ্রামের এক-দুটি উপজেলা ছাড়া বাকি উপজেলাগুলোর নাম আছে। সেই তালিকায় অনেক বর্তমান ও সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার ও পৌর কাউন্সিলরের নাম রয়েছে।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিনের সভাপতিত্বে সভায় বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়রসহ বিভিন্ন পর্ষদের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।