জেলা পরিষদে সদস্য থাকবেন উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়ররাও

চট্টগ্রাম : জেলা পরিষদের নতুন আইন অনুযায়ী উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়ররাও জেলা পরিষদে মেম্বার থাকবেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) বিকালে নগরের চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে জেলা পরিষদ টাওয়ারের মূল ভবন নির্মাণকাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

দেশের জেলা পরিষদকে আরও সক্ষম, কার্যকর করতে ‘জেলা পরিষদ আইন’ পরিবর্তন করতে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানিয়ে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, গেল কেবিনেট মিটিংয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এটা অনুমোদন দিয়েছেন। সেই অনুমোদনের মধ্যে আমাদের জেলা পরিষদের মেম্বারের পাশাপাশি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং বিভিন্ন পৌরসভার মেয়রদেরকেও মেম্বার করা হয়েছে। এতে সুবিধা হবে-উপজেলা এবং পৌরসভার সাথে জেলা পরিষদের একটা কানেক্টিভিটি হবে। পৌরসভা এবং উপজেলার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ও সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা যাবে। সমাধানের পথও তৈরি হবে।’

নতুন জেলা পরিষদ আইনে জেলা পরিষদের সমন্বয় সভাগুলোতে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের রাখার সুযোগ রাখা হয়েছে বলেও মন্ত্রী জানান।

চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালামের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, আজকে বাংলাদেশে জেলা পরিষদের মাধ্যমে অনেক মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূর্ণ হচ্ছে। এটা সঙ্গত কারণে মানুষের প্রত্যাশা। আর সেই প্রত্যাশা পূরণের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমার কাছে যে তথ্য আছে সেটি হচ্ছে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ। সামগ্রিক কর্মকাণ্ডে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ শীর্ষত্ব অর্জন করেছে। চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম হবে। আমার দৃষ্টিতে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সারাদেশের মধ্যে এক নম্বরে আছে।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার সচিব হেলাল উদ্দীন আহমেদ বলেন, ‘মাননীয় স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বাংলাদেশে ৬১ জেলা পরিষদ অত্যন্ত সুন্দরভাবে পরিচালিত হচ্ছে। চেয়ারম্যান এম এ সালামের সুযোগ্য নেতৃত্বে ১৮ তলা বিশিষ্ট একটি দৃষ্টিনন্দন ভবন পেতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ। জেলা পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে এরকম একটি ভবন তৈরির নজির বাংলাদেশের অন্য কোনও জেলায় নেই। চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, প্রধান নির্বাহী এবং প্রকৌশলীর দারুণ সমন্বয় আছে। যার উদাহরণ নির্মাণাধীন ১৮ তলা ‘জেলা পরিষদ টাওয়ার’।

সভায় আরও বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য প্যানেল চেয়ারম্যান কাজী আবদুল ওয়াহাব। এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। সভায় চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে সরকারের ‘জমি আছে, ঘর নাই’ প্রকল্পের আওতায় গৃহহীন ৫০ জনকে ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার তথ্য জানানো হয়। অনুষ্ঠানে তিনজনকে ঘরের ‘চাবি’ প্রদান করেন প্রধান অতিথি। পাশাপাশি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ৩৬৮ জন নারীকে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়।