বুধবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ৬ মাঘ ১৪২৮

চট্টগ্রামে শুঁটকি রান্না প্রতিযোগিতায় বিজয়ী যারা

প্রকাশিতঃ শনিবার, জানুয়ারি ১৫, ২০২২, ৮:১২ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম : শুটকিজ ইভেন্ট ম্যানেজম্যান্টের আয়োজনে চট্টগ্রামের রাঁধুনিদের জন্যে ‘হূনি রাঁধনত গুণী হন’ (শুঁটকি রান্নায় গুণী কে?) প্রতিযোগিতার ফাইনাল পর্ব আগ্রাবাদ সেনা কল্যাণ কনভেনশন সেন্টারে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনে ৭ জন প্রতিযোগির মধ্যে গ্রান্ড ফাইনাল পর্ব শেষ হয়। মোট ৪৬ জন প্রতিযোগির মধ্যে বিচারকদের সরাসরি ভোটে কাউছারী সুলতানা চ্যাম্পিয়ন, সাথী সুজন প্রথম রানার্স আপ, জেসমিন আক্তার জেসী দ্বিতীয় রানার্স আপ নির্বাচিত হন।

এই পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়নের হাতে ট্রফি তুলে দেন জনক-জননী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী সমাজসেবক ফরিদ মাহমুদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় রানার্স আপের হাতে পুরস্কার তুলে দেন যথাক্রমে ইন্ডিপ্যান্ডেন্ট অ্যাপারেলের এমডি সাবেক বিজিএমইএ নেতা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব ও রেঙ্কস প্রপাটিজ সিইও তানভির শাহরিয়ার রিমন।

অনুষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্ল্যান বি এর ফাউন্ডার তৌহিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন আয়োজক কমিটির সদস্য সায়মা সুলতানা ও আরাফাতুল ইসলাম আকিব।

অনুষ্ঠানে বিচারক ছিলেন, লিনাস রোজারিও, সাবিনা ইকরাম এ্যানি, রুবেনা রুবি, সায়মা সুলতানা, নুর আক্তার জাহান, কামরুন এনকে, ডাক্তার উম্মে রুমানা, সুরঞ্জিত বড়ুয়া ও সনজয় চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথিরা অনুষ্ঠান সম্পর্কে তাদের ব্যক্তিগত অনুভুতি ব্যক্ত করেন।

প্রথম পর্বের প্রধান অতিথি ফরিদ মাহমুদ বলেন, ‘চট্টগ্রাম দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী। চট্টগ্রামের রয়েছে হাজার বছরের ইতিহাস। যখন আধুনিক রাষ্ট্রপ্রথা ছিল না তখন চট্টগ্রাম ছিল স্বমহিমায় ভাস্কর। শুঁটকি চট্টগ্রামের হাজার বছরের ঐতিহ্য। সর্বক্ষেত্রে আমাদেরকে চট্টগ্রামকে ব্র্যান্ডিং করতে হবে। হালের প্রযুক্তি আসক্তিতে যেন গুণীরা হারিয়ে না যায়।’

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে আর এবি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম বাবুল, শেঠ গ্রুপের এমডি সোলেয়মান আলম শেঠ, সাহেলা আবেদিন রিমা, মোস্তারী মোর্শেদ স্মৃতি, ইফতেখার আবেদীন সম্মানীত অতিথি হিসেবে যোগ দেন।