শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সামরিক সংলাপ, যৌথ সহযোগিতা বন্ধের ঘোষণা চীনের

প্রকাশিতঃ ৬ অগাস্ট ২০২২ | ১:২৫ অপরাহ্ন


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন কংগ্রেসের সিনিয়র ডেমোক্রেট ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে জলবায়ু পরিবর্তন, সামরিক আলোচনা ও আন্তর্জাতিক অপরাধ মোকাবেলায় প্রচেষ্টাসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সহযোগিতা বন্ধ করছে চীন।

সেইসঙ্গে, পেলোসি এবং তার পরিবারের ওপর নিষেধাজ্ঞার ঘোষণাও দিয়েছে দেশটি। কূটনৈতিক এই সফরকে তাইওয়ানের সার্বভৌমত্বের দাবির প্রতি চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাবি করে এসব সিদ্ধান্তের কথা জানায় চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তবে, স্ব-শাসিত দ্বীপ তাইওয়ান চীনের মূল ভূখণ্ড থেকে নিজেকে আলাদা বলেই মনে করে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জারি করা বিবৃততে বলা হয়েছে, মার্কিন ও চীনা প্রতিরক্ষা কর্মকর্তাদের মধ্যে সংলাপ, অবৈধ অভিবাসীদের ফিরিয়ে নেওয়া সংক্রান্ত আলোচনা, জলবায়ু পরিবর্তন এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ তদন্তে সহযোগিতা স্থগিত করা হবে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সৌহার্দ্যপূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। কার্বন নির্গমন কমাতে গেল বছর গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত জলবায়ু শীর্ষ সম্মেলন কপ-২৬-এ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জরুরিভিত্তিতে কাজ করার অঙ্গীকার করেছিল চীন।

অবৈধ মাদক ব্যবসাসহ সন্ত্রাস দমনেও সহযোগিতাপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেছে চীন-যুক্তরাষ্ট্র। তবে মার্কিন রাজনীতিবিদ ন্যান্সি পেলোসির সফরকে কেন্দ্র করে সহযোগিতার এসব ক্ষেত্র হুমকির মুখে পড়েছে।

চীনের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সহযোগিতা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণ পেলোসির তাইওয়ান সফর। চীনের দৃঢ় বিরোধিতাতে উপেক্ষা করে তাইওয়ান সফর করায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া, পেলোসি এবং তার প্রতিনিধিদলের বিরুদ্ধে এই অঞ্চলের শান্তি বিনষ্টে ‘ভয়াবহ উসকানি’ দেওয়ারও অভিযোগ এনেছে চীন।