বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

৭ বছর পর বান্দরবান ছাত্রলীগের সম্মেলন, উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা

প্রকাশিতঃ ৫ অক্টোবর ২০২২ | ২:৪৮ অপরাহ্ন


বান্দরবান প্রতিনিধি : দীর্ঘ ৭ বছর পর আগামী ১৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন।

শহরের ঐতিহাসিক রাজার মাঠে সম্মেলনের স্থান নির্ধারিত করা হয়েছে। সম্মেলন উপলক্ষে নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। জাকজমকপূর্ণভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করতে নেয়া হচ্ছে সব প্রস্তুতি।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ গুরুত্বপূর্ণ পদপ্রত্যাশী নেতারা সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি স্থানীয় রাজনীতির নীতিনির্ধারণী ব্যক্তিদের কাছে গিয়ে সমর্থন আদায় করছেন।

সবশেষ জেলা ছাত্রলীগের আনুষ্ঠানিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ৭ বছর আগে ২০১৫ সালে। যে সম্মেলনের মাধ্যমে কাউসার সোহাগ সভাপতি ও জনি সুশীল সম্পাদক মনোনিত হন। পরে জেলা থেকে বাকি পদ পূরণ করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়।

ছাত্রলীগের একাধিক নেতা বলেন, দীর্ঘ দিন সম্মেলন না হওয়ায় বয়সের বাধ্যবাধকতার কারণে নতুন নেতৃত্ব প্রত্যাশীদের মঝে ব্যাপক হতাশা তৈরি হয়েছে। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বিষয়টি অনুধাবন করে বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠানের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। যার ফলশ্রুতিতে সম্প্রতি কেন্দ্র থেকে ১৩ অক্টোবর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়।

জেলা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, ১৩ অক্টোবর জেলার রাজার মাঠে বেলা দুইটায় এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউছার সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জনী সুশীলের সঞ্চালনায় সম্মেলন উদ্বোধন করবেন কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউসার সোহাগ বলেন, বর্তমান নেতৃত্বে ছাত্রলীগের সাতটি উপজেলা, ৩টি কলেজ, ৩৩টি ইউনিয়ন, দুইটি পৌরসভায় সম্মেলন করার জন্য প্রস্তুতি সভা করা হচ্ছে।

এদিকে সম্মেলন সফল করতে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিসহ ছয়টি উপকমিটি করা হয়েছে।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আশীয় বড়ুয়া জানান, শহরের রাজার মাঠে সম্মেলন অনুষ্ঠান সম্পন্ন করার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করা হবে। নির্ধারিত সময়ের আগেই সকল আয়োজন সম্পন্ন হবে জানান তিনি।

নতুন কমিটির নেতৃত্বের বিষয়ে তিনি বলেন, নেতা-কর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্য, দক্ষ ও নেতৃত্বের গুণাবলী সম্পন্ন নেতার হাতেই আগামী দিনে বান্দরবান ছাত্রলীগের নেতৃত্ব আসবে।

সম্মেলনে সভাপতি পদে পুলু মার্মা, শুভ দাশ, সোহেল, আরমান হোসেন, আনোয়ার সাইদ, শুভ দাস শুভ। এবং সাধারণ সম্পাদক পদে তৌহিদ রায়হান, মনিরুল ইসলাম, শামীম আহমেদ, সাদ্দাম হোসেন মানিক, দীপন নাথ, ইমরান খান, জুনায়েদ, আরফাত বাবু, মাহাই মার্মা, মুহিম, শোভন দাশ ফরম সংগ্রহ করেছেন।

সভাপতি পদে সংগঠনের সাধারণ নেতা-কর্মীদের মাঝে জনপ্রিয়তা, সাংগঠনিক দক্ষতা ও ক্লিন ইমেজের কারণে বর্তমান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পুলু মার্মা বেশি আলোচনায় রয়েছেন। এরপরে আলোচনায় রয়েছেন শুভদাশ শুভ। সাধারণ সম্পাদক পদে ছাত্রলীগ নেতা তৌহিদ রায়হান, শামীম আহমেদ ও জুনাইয়েদ হোসেন আলোচনায় রয়েছেন।