বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

শনিবার পিসিআইইউ’র দ্বিতীয় সমাবর্তন, ডিগ্রি পাবেন ৫৬৪৮ শিক্ষার্থী

প্রকাশিতঃ ২৪ নভেম্বর ২০২২ | ৯:৫১ অপরাহ্ন


চট্টগ্রাম : আগামী শনিবার (২৬ নভেম্বর) নগরের টাইগারপাসস্থ নেভি কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (পিসিআইইউ) ২য় সমাবর্তন।

সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি অনুষদের ৫ হাজার ৬৪৮ জন শিক্ষার্থীকে ডিগ্রি প্রদান করা হবে। যার মধ্যে ৪ হাজার ৫০১ জন স্নাতক ও ১ হাজার ১০১ জন স্নাতকোত্তর ডিগ্রি গ্রহণ করবেন। এবারের সমাবর্তনে ১৪ জন শিক্ষার্থীকে চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল ও ১৩ জন শিক্ষার্থীকে ফাউন্ডার গোল্ড মেডেল প্রদান করবে বিশ্ববিদ্যালয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামে
২য় সমাবর্তন উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরল আনোয়ার এসব তথ্য জানান।

সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের পক্ষে সভাপতিত্ব করবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা একেএম এনামুল হক শামীম। অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমেদ কায়কাউস। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ডক্টর দিল আফরোজা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান তাহমিনা খাতুন উপস্থিত থাকবেন।

এসময় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল আনোয়ার বলেন, ‘এই সমাবর্তন আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের। ২০১৩ সালের ১৭ মে মাত্র ৬ জন শিক্ষক, ৪ জন কর্মকর্তা ও ১ জন কর্মচারী এবং ৬টি প্রোগ্রামে ৬৯ জন শিক্ষার্থী নিয়ে আমরা যাত্রা শুরু করেছিলাম। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৭০ জন শিক্ষক, ৫ হাজার ৩৩৬ জন শিক্ষার্থীর এবং ১৯০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর পরিবারে পরিনত হয়েছে। ৪টি অনুষদের অধীনে ১০ টি বিভাগের ১৩ টি প্রোগ্রাম নিয়ে চলছে আমাদের শিক্ষা কার্যক্রম।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রম ও অর্জনের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে উপাচার্য বলেন, ‘আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও আমরা নিজেদের ছাপ ফেলে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, রুমানিয়ার দানুবিয়াস ইউনিভার্সিটি অব গালাচি, কানাডার নোবেল ইউনিভার্সিটি, চীনের নানসাং বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিদেশি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সমঝোতা স্বারকসহ অস্ট্রেলিয়ার একাডেমি অব বিজনেস লিডারশীপের আজীবন সদস্যের সম্মানও আমরা অর্জন করেছি।’

‘এছাড়া শিক্ষকদের উচ্চতর প্রশিক্ষণ প্রদানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে পাঠানো হয়েছে মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্য ও ভারতসহ বিভিন্ন দেশে। শিক্ষকদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেওয়া হচ্ছে কারিকুলাম বিষয়ক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ। শিক্ষার গুণমান ও স্বীকৃতি মানদণ্ড নিশ্চিতকরণে প্রতিবছর বিভিন্ন বিভাগ প্রোগ্রামভিত্তিক তাদের সেলফ এসেসমেন্ট রিপোর্ট প্রস্তুত করে থাকে।’

‘উন্নত বিশ্বের শিক্ষা পদ্ধতির সাথে সমন্বয় রেখে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের নির্দেশনায় আউটকাম ভিত্তিক শিক্ষা কারিকুলাম তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে ইতোমধ্যেই। এই বিশ্ববিদ্যালয় শুধু বিদ্যায়তনিক পাঠকে গুরুত্ব দেওয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়ার দিকে এগিয়ে নিতেও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিশ্ববিদ্যালয়ে বিতর্ক ক্লাব, স্পোর্টস্ ক্লাব, সাংস্কৃতিক ফোরাম, রোবটিক্স ক্লাবসহ বিভিন্ন ফোরাম পরিচালিত হয়ে আসছে।’

‘বৈশ্বিক করোনা মহামারির সময় সেশনজট এড়াতে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে শিক্ষাকার্যক্রম সক্রিয় ছিল এই বিশ্ববিদ্যালয়ে। যার ফলস্বরূপ বাংলাদেশ রিসার্চ এন্ড এডুকেশন নেটওয়ার্ক (বিডিরেন)’এর জরিপে অনলাইন পাঠদানে সারাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ষষ্ঠ স্থান অর্জনের কৃতিত্বও অর্জন করেছে এই বিশ্ববিদ্যালয়।’

‘মেধাবী ও দরিদ্র শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার পথকে মসৃণ করতে প্রতি সেশনে রত্নগর্ভা বেগম আশ্রাফুন্নেসা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে আসছে। দরিদ্র শিক্ষার্থীরা যাতে মানবিক মর্যাদাবোধ নিয়ে চলতে পারে সেজন্য শিক্ষার্থীদের অন-ক্যাম্পাস চাকরির সুযোগও দিয়ে থাকে। শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাজের স্বীকৃতি ও অনুপ্রেরণাস্বরূপ প্রতিবছর বিভিন্ন সম্মাননা ও আর্থিক প্রণোদনাও এই বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে আসছে।’

সাংবাদিকতা এবং গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক জুয়েল দাশের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য অধ্যাপক ড. এম. মজিবুর রহমান, এহসানুল হক রিজন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. গনেশ চন্দ্র রায়, সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার মফজল আহমদ, রেজিস্ট্রার মো. ওবায়দুর রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. সেলিম হোসেন, সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রমুখ।