মন্ত্রিসভার আকার বাড়তে পারে : ওবায়দুল কাদের


ঢাকা : সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের পর বর্তমান মন্ত্রিসভার পরিধি বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ভি মান্টিটস্কির সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রিসভার পরিধি বাড়ানো প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটি প্রধানমন্ত্রী বলতে পারেন। তবে সময়মতো কিছু, যেমন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়- এগুলোয় কোনো না কোনো সময় মন্ত্রী আসবেন।’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ের পর গত ১১ জানুয়ারি গঠিত হয় নতুন মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রীসহ নতুন মন্ত্রিসভার সদস্য ৩৭ জন। নতুন মন্ত্রিসভায় ২৫ জন মন্ত্রী এবং ১১ জন প্রতিমন্ত্রী রয়েছেন।

নতুন মন্ত্রিসভায় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ে বর্তমানে আলাদা মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী নেই। এগুলোর দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রীর হাতে রয়েছে।

সংরক্ষিত আসনের নির্বাচনের পর নির্বাচিত নারীদের মধ্য থেকে মন্ত্রী হতে পারেন জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা আমার মনে হয় সংরক্ষিত মহিলা আসনগুলো আসার পরে, মন্ত্রী আসতে পারে। সেই হিসেবে এর পরে চিন্তা-ভাবনা। প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ারে তিনি এটা করবেন।’

রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা সবার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রাখতে চাই। রাশিয়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক মানে আমেরিকাকে সরাসরি শত্রু বানাতে চাই না। নির্বাচনে সহায়তা করায় রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছি।’

মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীসহ বিভিন্ন বাহিনীর যারা আত্মরক্ষার্থে পালিয়ে এসেছে তাদের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তাদের নিজ দেশে ফেরার বিষয়টি আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনে প্রক্রিয়াধীন আছে। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের প্রক্রিয়া জাতিসংঘ, ইইউ, চীন, ভারতসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাকে সঙ্গে নিয়ে অব্যাহত আছে।’