চবিতে ২৭৩ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

CUচবি: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ অর্থবছরের ২৭৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮ তম বার্ষিক সিনেট সভা। এছাড়া ২০১৫-১৬ অর্থবছরের ২২১ কোটি ৬ লাখ টাকার সংশোধিত বাজেট পাশ হয়েছে এ সভায়। তবে ইউজিসি থেকে চাহিদার চেয়ে ১৫১ কোটি ৩২ লাখ টাকা কম বরাদ্দ পেলেও বাড়ানো হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ।

গতকাল শনিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সিনেট সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত ২৮তম বার্ষিক সিনেট সভা থেকে এ তথ্য জনা যায়। চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বাজেট পেশ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. কামরুল হুদা।

বাজেটের উল্লেখযোগ্য খাতগুলোঃ

বাজেটের উল্লেখযোগ্য খাতগুলোর মধ্যে শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন খাতে ১৮৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা, পেনশন খাতে ৫২ কোটি টাকা, সাধারণ আনুষঙ্গিক খাতে ১৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা, শিক্ষা আনুষঙ্গিক খাতে ৩১ কোটি ৫৬ লাখ টাকা, মেরামত, সংরক্ষণ ও পুনর্বাসন খাতে ২ কোটি ২৪ লাখ টাকা এবং মূলধন মঞ্জুরি (সম্পদ সংগ্রহ ও ক্রয়) খাতে ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়।

উচ্চ শিক্ষা, প্রশিক্ষন ও গবেষণায় বরাদ্দ বৃদ্ধিঃ

উচ্চ শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষনা খাতে গতবছরের চেয়ে ৮৩ লক্ষ টাকা বরাদ্দ বেশি দেয়া হয়েছে এবারের বাজেটে। ২০১৫-১৫ অর্থবছরের জন্য যেখানে এ খাতে বরাদ্দ ছিলো ৩ কোটি ১৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা সেখানে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে এ খাতে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৩ কোটি ৯৯ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা। এর মধ্যে শুধু গবেষণার জন্যই বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৬০ লাখ, যা গত অর্থবছরে ছিলো মাত্র ১০ লাখ!

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ইউজিসিতে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য ৪২৫ কোটি ১২ লাখ টাকার চাহিদা পাঠানো হয়। এর বিপরীতে ইউজিসি বিশ্ববিদ্যালয়কে বরাদ্দ দেয় ২৭৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা। এর মধ্যে ইউজিসি থেকে দেওয়া হবে ২৫৭ কোটি ১০ লাখ টাকা। বাকি ১৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে নিজস্ব আয় দেখাতে বলা হয়েছে।

বাজেট বক্তৃতায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি আন্তর্জাতিক মানের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠে রূপান্তর করতে কাজ করে যাবেন তিনি। বরাদ্দকৃত বাজেট অপ্রতুল হলেও সীমিত সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহার করাই তার লক্ষ্য বলে জানান এ শিক্ষাবিদ।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরিণ আখতার, সংসদ সদস্য মাইন উদ্দীন খান বাদল, প্রফেসর ড. ইমরান হোসেন, প্রফেসর ড. সোলতান আহমেদ সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্যরা।