রিকশা নিয়ে ঘরে ফেরা হল না খুরশিদের

সুমন চৌধুরীঃ বুক ভরা আশা ও পরিবারের স্বচ্ছলতা গোছাতে দীর্ঘদিন থেকেই রিকশা চালান কালামিয়া বাজারের বাসিন্দা মোঃ খুরশিদ আলম। লক্ষ্য ভাগ্যের যদি কিছুটা পরিবর্তন হয়। কিন্তু দুর্ভাগ্যই যেন তার সহায়। উপার্জনের আয় নিয়ে দিনের শেষে ঘরে থাকার কথা ছিল তার। কিন্তু এক পা হারিয়ে বর্তমানে হাসপাতালের বেডে কাতরাতে হচ্ছে পঞ্চাশোর্ধ খুরশীদ আলমকে।

নগরীর ফিরিঙ্গি বাজার এলাকায় গতকাল(০৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঘাতক ট্রাকের ধাক্কায় পিষ্ট হয়ে পা হারান রিকশা চালক খুরশীদ। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায়  মূমুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নেয়া হলে দ্রুত  অস্ত্রোপচার করে এক পা কেটে ফেলা হয়। ঘাতক ট্রাকের চালক পালিয়ে গেলেও ধরা পড়ে হেলপার মোঃ সাইফুল (২৮)।

সোমবার বিকেলে হাসপাতালে  প্রতিবেদকেরব সাথে কথা হয় তার স্ত্রী শিরিনের। তিনি বিলাপ করতে করতে জানান,’আমাদের পরিবারের এক মাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি আজকে বিছানায় কাতরাচ্ছে,কে দেখবে এখন আমার পরিবার? কে দেখবে আমার দুই ছেলে মেয়েকে ? কিভাবে বাঁচবো আমরা?’

কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক সঞ্জয় চৌধুরী একুশে পত্রিকাকে বলেন, গতকাল (রোববার) রাত ৮.৩০ এর দিকে ফিরিঙ্গী বাজারে কাজী নজরুল ইসলাম রোডে দ্রুত গতির একটি ট্রাক রিক্সাকে ধাক্কাদিলে মোঃ খুরশিদ আলম নামের একজন আহত হয়। আমরা ট্রাকের হেলপারকে আটক করেছি। খুরশিদের শ্যালক মোঃ তৈয়ব ইতোমধ্যে ট্রাক মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

একুশে/এসসি/এএইচ/আরএইচ/এটি