শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কারাগারগুলো এখন শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত কয়েদখানা : রিজভী

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, মার্চ ২২, ২০১৯, ৪:২৯ অপরাহ্ণ

ঢাকা : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বাংলাদেশের কারাগারগুলো এখন শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত কয়েদখানাতে পরিণত হয়েছে, যেখানে তিনি তাঁর খেয়ালখুশি মতো বিরোধী রাজনীতিবিদদেরকে বন্দি রাখতে পারেন। এই নব্য বাকশালের বিরদ্ধে এখন সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। নইলে দেশে ঘন অন্ধকার ঘনিয়ে আসবে।

শুক্রবার (২২ মার্চ) পূর্ব নির্ধারিত কোনো ঘোষণা ছাড়া খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে একটি ঝটিকা মিছিল নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বের হয়ে স্কাউট মার্কেট ঘুরে ফকিরাপুল থেকে নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ঝটিকা মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন।

তবে দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় যে, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে ঝটিকা মিছিল করেছে দলটির নেতাকর্মীরা।

এসময় এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রিজভী বলেন, গণতন্ত্র হত্যাই আওয়ামী লীগের আদর্শ। ক্ষমতায় এসে তারা গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠিয়ে কর্তৃত্ববাদী শাসন চালিয়ে জনগণকে বারবার ক্রীতদাস বানিয়েছে। শেখ হাসিনা ‘৭৫ এর হুবহু বাকশাল পূণঃপ্রর্বতনের অঙ্গিকার ব্যক্ত করেছেন। গণতন্ত্র যাতে পুনরুজ্জীবিত হতে না পারে সেজন্য বেগম জিয়াকে বিনা দোষে, বিনা কারণে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা না দিয়ে তার অসুস্থতাকে গুরুতর করার যাবতীয় ব্যবস্থা করে যাচ্ছে সরকার। স্বৈরশাসনের কষাঘাতে জনগণের মনে বিষাদঘন অবস্থা বিরাজমান। দেশে নৈরাজ্যজনক পরিস্থিতি আর চলতে দেওয়া যায় না।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশ থেকে সকল গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আপোষহীন নেত্রী খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করার আহ্বান জানান রিজভী।

এ সময় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, নীলফামারী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আলমগীর সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

একুশে/এসসি